নিরাপদ সড়কের দাবিতে রাস্তায় শিক্ষার্থীরা

নিরাপদ সড়কের দাবিতে আবারও মাঠে নেমেছে রাজধানীর বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর কাকরাইল এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলের শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি উইলস লিটলস স্কুলের সামনে থেকে শুরু হয়ে শান্তিনগর এলাকা প্রদক্ষিণ করে। বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণের সময় সংলগ্ন স্কুলের শিক্ষার্থীরা এসে যোগ দিতে থাকে মিছিলটিতে।

এদিকে, শান্তিনগরে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে ভিকারুননিছা নুন স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা। এ সময় তারা সহপাঠী শিক্ষার্থী হত্যার বিচার চেয়ে স্লোগান দিতে থাকেন। তারা বলতে থাকেন-উই ওয়ান্ট জাসটিস। বিক্ষোভে অংশ নেন সহস্রাধিক শিক্ষার্থী। এ সময় তাদের সঙ্গে আশপাশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন। সভাস্থলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষীবাহিনীর সদস্যরা রয়েছেন।

ফার্মগেটে আন্দোলন করছেন তেজগাঁও সরকারি বিজ্ঞান কলেজের শিক্ষার্থীরা। সেখানে এক শিক্ষার্থী মাইকে বলেন, ‘বিভিন্ন সময়ে সড়কে গাড়িচাপায় অনেক শিক্ষার্থী মারা গেছে। এরপরে কিছু কিছু ছোট ছোট সমাধান দেওয়া হয়েছে, কিন্তু আমরা কোনো স্থায়ী সমাধান পাইনি। এই ২১ সালে এসে কালকে যখন নটরডেমের ভাইটা মারা গেল এটার দায় কে নেবে। এই যে তার বাবার বুকভরা কান্না এটার দায় কে নেবে। এটার কি কোনো স্থায়ী স্থায়ী সমাধান নেই। কারো কাছে কি নেই।’

এই শিক্ষার্থী বলেন, ‘দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়ি কীভাবে একটা ছাত্রের উপর দিয়ে চলে যায়? সে যখন রাস্তায় পড়ে গেল তখন সে হাত বাড়িয়েছে, কিন্তু গাড়ির চালক তার কোনো কথা শোনেনি। আশেপাশের মানুষ চালককে বলেছে, ভাই একটু রাখেন, একটা ছেলে নিচে পড়েছে, এরপরেও কীভাবে তার উপর দিয়ে চলে যায়। এর কি কোনো প্রতিবাদ হবে না।’

তিনি অভিযোগ করেন, নাঈম যখন গাড়ির নিচে চাপা পড়েন সেখানে পুলিশ উপস্থিত ছিল, কিন্তু কেউ এগিয়ে আসেনি। তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, এটা কি পুলিশের দায়িত্বের মধ্যে পড়ে না?

এদিকে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়িচাপায় শিক্ষার্থী নাঈম হাসান নিহতের ঘটনায় বিচারের দাবিতে আজও বিক্ষোভ করছেন নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থীরা। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ারও ঘোষণা দেন তারা। বেলা সাড়ে ১১টা থেকে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ শুরু করেন। চার শতাধিক শিক্ষার্থী মতিঝিল শাপলা চত্বর থেকে বিক্ষোভ শুরু করে বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করেন।

উল্লেখ্য, তেলের দাম বাড়ানোর জেরে বাস ভাড়া বেশি আদায় নিয়ে কয়েকদিন ধরে যাত্রীদের সঙ্গে বিতণ্ডা চলছিল পরিবহন সংশ্লিষ্টদের। সেই সঙ্গে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া দেওয়া নিয়ে নানা অপ্রীতিকর ঘটনার জেরে এই আন্দোলন। এরমধ্যে গতকাল সড়ক দুর্ঘটনায় নটর ডেম কলেজের এক শিক্ষার্থীর নিহতের ঘটনায় আবারও সড়কে নেমে আসে শিক্ষার্থীরা।

 

অর্থসূচক/এএইচআর