কাউন্সিলরসহ ২ জনকে হত্যা মামলার এক আসামি গ্রেপ্তার

কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সৈয়দ মো. সোহেলকে নিজ কার্যালয়ে ঢুকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় সুমন নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি শহরের সুজানগর পূর্ব পাড়া বৌবাজার এলাকার মৃত কানু মিয়ার ছেলে এবং ওই ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলার চার নম্বর আসামি।

র‌্যাব-১১ কুমিল্লা সিপিসি-২ এর অধিনায়ক মেজর সাবিক হোসেন জানান, মঙ্গলবার রাতে ওই হত্যাকাণ্ডে একটি হত্যা মামলা দায়ের হয়। সকালে গোপনসূত্রে খবর পেয়ে র‌্যাব হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে চিকিৎসাধীন সুমনকে গ্রেপ্তার করে। পরে তাকে পুলিশে হস্তান্তর করা হয়। তার চিকিৎসার প্রয়োজন হলে পুলিশ ব্যবস্থা নিবে বলেও জানান তিনি।

এর আগে মঙ্গলবার দিবাগত গভীর রাতে নিহত কাউন্সিলর সোহেলের ছোট ভাই সৈয়দ মো. রুমন বাদী হয়ে হত্যা মামলাটি করেন। মামলায় শহরের সুজানগর বৌবাজার এলাকার মৃত জানু মিয়ার ছেলে ‘মাদক ব্যবসায়ী’ শাহ আলমকে প্রধান আসামি করে এজহার নামীয় ১১ জনসহ মোট ২১ জনকে আসামি করা হয়।

উল্লেখ্য, গত সোমবার বিকেলে কাউন্সিলর সোহেলকে নিজ কার্যালয়ে ঢুকে সহযোগীসহ গুলি করে হত্যা করে মুখোশধারীরা। পরে মঙ্গলবার জানাযা শেষে সোহেলের মরদেহ পাথুরিয়াপাড়া কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ আরও পাঁচ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তবে তারা শঙ্কামুক্ত।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •