রুদ্ধশ্বাস ম্যাচ শেষে হাসপাতালে তাসকিন

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে থেকেই দারুণ ছন্দে রয়েছেন তাসকিন আহমেদ। চলতি পাকিস্তান সিরিজেও বাংলাদেশের অন্যতম সেরা পেসার তিনি। যদিও সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টিতে চোটে পড়েছেন এই ডানহাতি পেসার। ম্যাচ শেষে তাকে রাজধানী এভার কেয়ার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এই ম্যাচে ৩.১ ওভার বোলিং করে ১৬ রান দিলেও কোনো উইকেট পাননি এই পেসার।

পাকিস্তানের ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই তাসকিনের হাতে বল তুলে দিয়েছিলেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। সেই ওভারে এই পেসার খরচা করেছিলেন মাত্র ৩ রান। এরপর ষষ্ঠ ওভারে নিজের দ্বিতীয় ওভার করতে আসেন তাসকিন। তার করা প্রথম বলে স্ট্রেইট ড্রাইভ করেন পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম। বলটি ধরার চেষ্টা করেছিলেন তাসকিন। যদিও বলের গতির সঙ্গে পেরে ওঠেননি এই পেসার। বাবর আজমের ড্রাইভ করা বল সজোরে আঘাত হানে তাসকিনের ডান হাতে।

এরপর তাকে সেবা শুশ্রূষার জন্য এগিয়ে আসেন ফিজিও জুলিয়ান ক্যালেফাতো। তার সঙ্গে সেই সময় মাঠ ছাড়েন তাসকিন। বাকি ৫ বল করেন আরেক পেসার শহিদুল ইসলাম। এরপর ইনিংসের একাদশ ওভারে আবারও মাঠে ফিরে আরও এক ওভার বল করে অস্বস্তির কারণে আবারও মাঠ ছাড়েন এই পেসার। সেই ওভারে কিছুটা খরুচে ছিলেন তাসকিন। দিয়েছিলেন ৯ রান। ইনিংসের শেষদিকে ১৮তম এসে আবারও আরেক ওভার করে মাঠ ছাড়েন তিনি। নিজের শেষ এই ওভারে তাসকিন খরচা করেন ৪ রান। তাসকিন ভালো বোলিং করলেও রুদ্ধশ্বাস এই ম্যাচে ৫ উইকেটে হারতে হয়েছে বাংলাদেশকে।

পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ৪ ওভারে ৩১ রান দিয়ে ২ উইকেট নিয়েছিলেন তাসকিন। আর দ্বিতীয় ম্যাচে ৪ ওভারে ২২ রান দিলেও উইকেটশূন্য ছিলেন তিনি।

অর্থসূচক/এএইচআর