সেমিফাইনালের আগে আইসিইউতে ছিলেন রিজওয়ান!

এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সবচেয়ে সফল ব্যাটারদের একজন মোহাম্মদ রিজওয়ান। পাকিস্তানকে সেমিফাইনালে তুলতে বাবর আজমের সঙ্গে তার জুটিগুলো বড় ভূমিকা রেখেছে।

এমনকি অস্ট্রেলিয়ার কাছে সেমিতে ফেরে যাওয়া ম্যাচেও রিজওয়ানের ব্যাটে দেখা গেছে রানের ফুলঝুরি। অথচ এই ওপেনার নাকি সেমির আগের দুই রাত কাটিয়েছেন ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ)!
অজিদের কাছে হেরে সেমি থেকে বিদায়ের পর সংবাদ সম্মেলনে পাকিস্তানের দলের চিকিৎসক নাজীব সামরু বিষয়টি প্রকাশ্যে এনেছেন। তবে ম্যাচের আগেরদিন পাকিস্তানের ব্যাটিং কোচ ম্যাথু হেইডেনও জানিয়েছিলেন, পাকিস্তানি উইকেটরক্ষক-ব্যাটার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তবে আইসিইউয়ে থাকার বিষয়টি তখন তিনি উল্লেখ করেননি।

নাজীব সামরু ম্যাচ শেষে জানান, ‘রিজওয়ান ফুসফুসের গুরুতর সংক্রমণ নিয়ে নভেম্বরের ৯ তারিখ আইসিইউতে ভর্তি হন। তাকে দুই দিন সেখানে কাটাতে হয়। সে অবিশ্বাস্য দ্রুততায় সেরে উঠেছে এবং ম্যাচ খেলার জন্য ফিটনেস ফিরে পেয়েছে। দেশের হয়ে পারফর্ম করার জন্য সে ছিল দৃঢ় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ এবং আমরা তো আজকে দেখেছি সে কেমন খেলেছে। টিম ম্যানেজম্যান্টের সিদ্ধান্তেই তাকে খেলানো হয়েছে। সে দলে থাকলে সবার মনোবলও অনেক বেড়ে যায়। তাই আমরা ওকে একাদশে রেখে দিয়েছিলাম। ‘

এরপর বাবর আজম তার ওপেনিং সঙ্গীকে নিয়ে বলেন, “আমি যখন রিজওয়ানকে দেখলাম, সে কিছুটা দুর্বল ছিল, কিন্তু যখন তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে প্রশ্ন করলাম সে বলল, ‘না, আমি খেলব’। অবশ্যই সে দলের জন্য খেলে। সে আজ যেভাবে খেলেছে, তা অসাধারণ। ‘

আইসিইউ থেকে ফিরে রিজওয়ান সত্যিকারের অর্থেই বীরত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেছেন। অধিনায়ক বাবর ৩৪ বলে ৩৯ করে ফিরে গেলেও এক পাশ আগলে রেখে রিজওয়ান খেলেন ৫২ বলে ৬৭ রানের দারুণ এক ইনিংস। এর আগে বাবরের সঙ্গে তার জুটিতে আসে ৭১ রান। পাকিস্তান ১৭৬ রান তুললেও ৬ বল বাকি থাকতেই ৫ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় অস্ট্রেলিয়া।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •