মিয়ানমারে মার্কিন সাংবাদিক ড্যানির ১১ বছরের কারাদণ্ড

মিয়ানমারে আটক মার্কিন সাংবাদিক ড্যানি ফেন্সটারকে ১১ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে সামরিক আদালত। অভিবাসন আইন লঙ্ঘন, সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে ভিন্নমতকে উৎসাহিত করা এবং বেআইনি মেলামেশার দায়ে শুক্রবার দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন তিনি। বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে নিশ্চিত করেছেন ড্যানির আইনজীবী থান জাও অং।

৩৭ বছর বয়সী সাংবাদিক ড্যানি ‘ফ্রন্টিয়ার মিয়ানমার’ অনলাইনভিত্তিক সংবাদমাধ্যমের সম্পাদক ছিলেন। গত মে মাসে দেশ ছাড়ার সময় ইয়াঙ্গুন বিমানবন্দর তাকে আটক করে জান্তা সরকার। এরপর থেকেই কারাগারে বন্দি রয়েছেন তিনি।

ফ্রন্টিয়ার মিয়ানমারের প্রধান সম্পাদক টমাস কিন নিন্দা জানিয়ে বলেন, ‘এই অভিযোগে তাকে সাজা দেওয়ার কোনও ভিত্তি নেই। এই রায়ে ফ্রন্টিয়ারের প্রত্যেকে খুবই হতাশ। আমরা শুধু ড্যানিকে মুক্ত দেখতে চাই। সে যেন তার পরিবারের কাছে দ্রুত ফিরতে পারে’। তবে এই রায় নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে এখনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

সম্প্রতি সাংবাদিক ড্যানি ফেন্সটারের বিরুদ্ধে নতুন করে ‘সন্ত্রাসবাদ ও রাষ্ট্রদ্রোহিতার’ অভিযোগ আনে জান্তা সরকার। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তাকে আজীবন কারাভোগ করতে হতে পারে বলেও আশঙ্কা করেছেন আইনজীবী। মিয়ানমারের সরকারের দাবি, তিনি বিক্ষোভ উসকে দিয়ে বর্তমান সরকারের পতন ঘটাতে চেয়েছিলেন। তাকে মুক্তি দিতে জান্তার সরকারকে চাপ সৃষ্টি করে আসছে যুক্তরাষ্ট্র। গত ১ ফেব্রুয়ারির পর নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে এক হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •