প্রধানমন্ত্রী গবেষণার জন্য দুই হাতে টাকা দিচ্ছেন: পরিকল্পনামন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গবেষণার ওপর গুরুত্ব দিচ্ছেন বলে জনিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রধানমন্ত্রী প্রায়ই ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, “আমরা টাকা দিচ্ছি, আমরা অত ধনী দেশ হয়তো নই। তবুও দুই হাতে টাকা দিচ্ছি আমারা। তাহলে গবেষণা পাচ্ছি না কেন?’”

বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে সেভ আওয়ার সি, বাংলাদেশ আয়োজিত ‘নীল অর্থনীতি’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে মন্ত্রী এ কথা বলেন। এ সময় তিনি মৌলিক গবেষণা বেশি করে হওয়া দরকার বলে মন্তব্য করেন।

প্রয়োজনেই সুন্দরবন উজাড় হয়েছে মন্তব্য করে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘আমার মনে প্রশ্ন জাগতো সুন্দরবন কেন নোয়াখালী পর্যন্ত গিয়েই শেষ হয়ে গেলো? কেন কক্সবাজার পর্যন্ত গেলো না? অতীতে ছিল, খেয়ে খেয়ে এটাকে শেষ করা হয়েছে। সেটার জন্য দোষ দিয়ে লাভ নেই, প্রয়োজনেই খেয়েছে। এখনও খাচ্ছে।’

অন্য যেকোনও সময়ের তুলনায় বর্তমান সরকার ভালো করছে বলে তিনি মনে করেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের সরকারপ্রধানের আগ্রহ সর্বব্যাপী। এমন কোনও বিষয় নেই যেটা তিনি অ্যাভয়েড করে যান। অতীতের যেকোনও সময়ের তুলনায় এই সরকার ভালো করছে।’

এ সময় তিনি আয়োজকদের নীল অর্থনীতি নিয়ে গবেষণা চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান। এ ক্ষেত্রে সরকারের সব ধরনের সহয়তা থাকবে বলেও আশ্বাস দেন তিনি।

গোলটেবিল বৈঠকে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. জসীম উদ্দিন, ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. সন্তুস কুমার দেব, ওশেনোগ্রাফি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. কেএম আজয়ে চৌধুরী, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেরিটাইম বিশ্ববিদ্যালয়ের মেরিটাইম ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড স্ট্যাটিজিক স্টাডিস ডিপার্টমেন্টের প্রধান কমোডর ওয়াহিদ হাসান কুতুবুদ্দিন (এনডিসি)-সহ অনেকে।

অর্থসূচক/এমএস