কক্সবাজারের গুলিবিদ্ধ শ্রমিক লীগ সভাপতির মৃত্যু, সড়ক অবরোধ

সন্ত্রাসীদের গুলিতে গুরুতর আহত কক্সবাজার জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। রবিবার (৭ নভেম্বর) দুপুর ১টার দিকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এ খবরে তার অনুসারীরা ঝিলংজা ইউনিয়নের লিংক রোড এলাকা অবরোধ করে প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

জানা যায়, গত শুক্রবার (৫ নভেম্বর) রাত ১১টার দিকে কক্সবাজার সদর উপজেলার লিংক রোডে তার ছোটভাই কুদরত উল্লাহ সিকদারের অফিসে সন্ত্রাসীদের গুলিতে আহত হন তিনি। এ সময় জহিরুল ইসলাম ছাড়াও তার ছোটভাই ঝিলংজা ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান মেম্বার ও আগামী ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ইউপি নির্বাচনে মেম্বার পদপ্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা কুদরত উল্লাহ সিকদারসহ আরও তিন জন গুলিবিদ্ধ হন।

শুক্রবার রাতেই জহিরুল ইসলাম ও কুদরত উল্লাহ সিকদারকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

কক্সবাজার সদর থানার ওসি শেখ মুনির উল গিয়াস বলেন, চট্টগ্রাম মেডিক্যালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জহিরুল ইসলাম রবিবার দুপুরে মারা গেছেন। তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে এখনও কোনও অভিযোগ বা মামলা করা হয়নি।

এদিকে জহিরুল ইসলামের মৃত্যুর খবর পেয়ে কক্সবাজার সদর উপজেলার ঝিলংজা ইউনিয়নের লিংক রোড এলাকায় তার সমর্থকেরা বিক্ষোভ মিছিল বের করেছেন। এছাড়া সড়কে যান চলাচলও বন্ধ করে দেন তারা।

অর্থসূচক/এমএস