হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরলেন রজনীকান্ত

হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন দক্ষিণ ভারতের খ্যাতিমান অভিনেতা রজনীকান্ত। মস্তিষ্কে ঠিকমতো রক্ত সঞ্চালন হচ্ছিল না তার। অস্ত্রোপচার করে রক্ত প্রবাহ স্বাভাবিক করেন চিকিৎসকরা। রোববার (৩১ অক্টোবর) রাতে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পান থালাইভা। সুপারস্টার রজনীকান্ত ঘরে ফেরায় স্বস্তি পেয়েছেন তার ভক্ত-অনুরাগীরা।

এদিন বৃষ্টি মাথায় নিয়েই বাড়ি ফেরেন রজনীকান্ত। নিজে হেঁটেই বাড়িতে ঢোকেন। তার আগে গেটের বাইরে দাঁড়িয়ে থাকা অনুরাগীদের উদ্দেশ্যে হাত নাড়েন। ধন্যবাদ জানান তাদের। এসময় আরতি করে স্বামীকে ঘরে ঢোকান লতা রজনীকান্ত। বাড়িতে ঢুকেই প্রার্থনা করেন তিনি। পরে সেই ছবি শেয়ার করেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে।

গত ২৮ অক্টোবর শারীরিক সমস্যা নিয়ে চেন্নাইয়ের কাবেরী হাসপাতালে ভর্তি হন রজনীকান্ত। প্রথমে শোনা যায়, রুটিন চেক-আপ করতেই হাসপাতালে গেছেন তিনি। পরে হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানানো হয়, তার ক্যারোটিড আর্টারি রিভাসকুলারাইজেশন করা হয়েছে। ৭০ বছর বয়সী রজনীকান্তের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল থাকলেও তাকে কিছুদিন পর্যবেক্ষণে রাখার সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। সেই অনুযায়ী রোবাবর ছাড়া হয় কিংবদন্তি এই অভিনেতাকে।

গত বছরের বড়দিনেও আচমকা অসুস্থ হয়ে পড়েন রজনীকান্ত। সঙ্গে সঙ্গে হায়দরাবাদের অ্যাপোলো হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। জানা যায়, রক্তচাপজনিত সমস্যার কারণেই অসুস্থ হয়ে পড়েন এই কিংবদন্তি অভিনেতা। কোনো ঝুঁকি না নিয়ে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দুদিন হাসপাতালে থাকার পর ছাড়া পান তিনি।

এ ঘটনার কিছুদিন আগেই সক্রিয় রাজনীতিতে অংশ নেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন রজনীকান্ত। নতুন বছরেই নিজের দলের নাম জানাবেন বলে কথা দিয়েছিলেন। সেই সময় অনেক ঘনিষ্ঠই তাকে দুর্বল স্বাস্থ্যের কথা স্মরণ করিয়ে দেন। পরে তিনি আবার শারীরিক সমস্যার কারণে রাজনীতি থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নেন।

জানা গেছে, রোববার হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেও অনেক বিধিনিষেধ মানতে হবে রজনীকান্তকে। বেশি পরিশ্রমের কাজ আপাতত কিছুদিন তিনি করতে পারবেন না। সুতরাং, শুটিংয়ের কাজও বন্ধ রাখতে হবে। দিওয়ালিতে মুক্তি পাচ্ছে রজনীকান্তের নতুন ছবি ‘আন্নাথে’। তার প্রচারেও হয়তো খুব একটা দেখা যাবে না দক্ষিণী সুপারস্টারকে।

অর্থসূচক/এমএস