আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংকের ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ শীর্ষক ওয়েবিনার

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড (এআইবিএল) আয়োজিত ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ শীর্ষক ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ব্যাংকের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সেলিম রহমান উপস্থিত ছিলেন। ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও ফরমান আর চৌধুরীর সভাপতিত্বে ওয়েবিনারে ব্যাংকের এক্সিকিউটিভ কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুস সালাম, পরিচালক বদিউর রহমান, আলহাজ্ব মোঃ আনোয়ার হোসেন ও মোঃ আমির উদ্দিন পিপিএম অংশগ্রহণ করেন।

ব্যাংকের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট ইঞ্জিনিয়ার মোঃ হাবীব উল্লাহর সঞ্চালনায় ওয়েবনিয়ারে প্রধান আলোচক হিসেবে বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, বঙ্গবন্ধু চেয়ার অধ্যাপক ও বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস এবং বাংলা একাডেমির সাবেক মহাপরিচালক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন উপস্থিত ছিলেন। এতে আরও বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. শওকত আরা হোসেন। এ সময় ব্যাংকের উপব্যবস্থাপনা পরিচালকবৃন্দ, শীর্ষ নির্বাহীরা অংশগ্রহণ করেন।

অধ্যাপক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেন, বঙ্গবন্ধু ১৯৪৭ সাল থেকেই স্বাধীনতার স্বপ্ন দেখেছিলেন। পরবর্তীতে বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামের মধ্য দিয়ে ১৯৭১ সালে তাঁর নেতৃত্বে তা লাভ করে। বঙ্গবন্ধু একটি আদর্শের নাম। তাকে সম্মান জানাতে হলে তাঁর আদর্শ বাস্তবায়ন করতে হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ব্যাংকের চেয়ারম্যান সেলিম রহমান স্বাধীনতার স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদান গভীর শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর আহ্বানে সাড়া দিয়েই আজ আমরা একটি স্বাধীন রাষ্ট্রের নাগরিক হতে পেরেছি। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বাঙালি জাতির জন্য একটি কলঙ্কিত দিন। ওই দিন বাঙালি জাতির যে ক্ষতি সাধিত হয়েছে, তা কোনো কালেই পূরণ হওয়ার নয়।

সভাপতির বক্তব্যে ব্যবস্থাপনা পরিচালক বলেন, ছাত্রজীবন থেকেই বঙ্গবন্ধু ছিলেন অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী ও সাহসী। তাঁর গভীর দেশপ্রেম, সীমাহীন আত্মত্যাগ আর অতুলনীয় নেতৃত্ব দিয়েই অর্জিত স্বাধীনতার জন্য বাঙালি জাতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কাছে চিরঋণী।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...