একদিনের ব্যবধানে রামেকে দ্বিগুণ মৃত্যু

0
101

রাজশাহী মেডিক‌্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ইউনিটে করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে আটজন করোনায় এবং উপসর্গ নিয়ে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর আগের দিন রামেকের করোনা ইউনিটে সাতজনের মৃত্যু হয়েছিল। এছাড়া গত ২৮ জুন ও ১৪ জুলাই দুইদিন সর্বোচ্চ ২৫ জনের মৃত্যু হয়।

রোববার (২২ আগস্ট) রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, মারা যাওয়া ১২ জনের মধ্যে রাজশাহীর পাঁচজন, নাটোর, নওগাঁ ও পাবনার দুই জন করে এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জের একজন রোগী ছিলেন। গত জুলাই মাসে ৫৩৫ জনের মৃত্যু হয়। এর আগে জুন মাসে করোনা ইউনিটে মারা গেছেন ৩৫৪ জন।

তিনি আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ পাঁচজন মারা গেছেন হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ)। এ ছাড়া ৩ নম্বর ওয়ার্ডে দুজন এবং ১, ৪, ১৫, ২২ ও ২৯/৩০ নম্বর ওয়ার্ডে একজন করে মারা গেছেন। শনিবার সকাল ৯টা পর্যন্ত ৫১৩ শয্যার রামেক করোনা আইসোলেশন ইউনিটে রোগী ভর্তি ছিলেন ২৪০ জন। এক দিন আগেও এই সংখ্যা ছিল ২৫৪।

বর্তমানে রাজশাহীর ১০৮ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ২৭ জন, নাটোরের ৩৪ জন, নওগাঁর ৩০ জন, পাবনার ২৯ জন, কুষ্টিয়ার আটজন, জয়পুরহাটের দুজন এবং বগুড়ার দুজন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। হাসপাতালে করোনা নিয়ে ভর্তি রয়েছেন ১১১ জন। করোনা উপসর্গ নিয়ে ভর্তি রয়েছেন ৯৬ জন। করোনা ধরা পড়েনি ভর্তি ৩৩ জনের। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ১৬ জন। এই এক দিনে হাসপাতাল ছেড়েছেন ২৩ জন।

গত বছরের এপ্রিল থেকে এই বছরের জুলাই পর্যন্ত রামেক হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৯ হাজার ৩৯ জন রোগী। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়ে গেছেন ২ হাজার ৫১১ জন। এই ১৫ মাসে মারা গেছেন ১ হাজার ৬০৯ জন। এর মধ্যে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৫২৬ জনের।

অর্থসূচক/এএইচআর