বরিশালে ২৪ ঘণ্টায় ১৪ জনের মৃত্যু

0
97

করোনায় আক্রান্ত হয়ে ও উপসর্গ নিয়ে বরিশাল বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে করোনায় সাতজন ও উপসর্গ নিয়ে সাতজন মারা গেছেন। একই সময়ে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৩৭৭ জন।

বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) সকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিভাগীয় পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের করোনার আইসোলেশন ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে সাতজনের এবং করোনায় আক্রান্ত হয়ে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া বিভাগের বিভিন্ন জেলা-উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরো পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ছয়জনের মধ্যে বরিশালে একজন, পিরোজপুরে দুইজন ও বরগুনায় চারজন রয়েছেন। সবমিলিয়ে বরিশাল বিভাগে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৭৬ জনে। একই সময় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩৭৭ জন। এ নিয়ে বিভাগে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪০ হাজার ১১৯ জনে। এছাড়া ২৪ ঘণ্টায় বরিশাল বিভাগে মোট ৩৯৫ জন সুস্থ হয়েছে, যা নিয়ে এখন পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ২২ হাজার ৮২৯ জন।

আক্রান্তদের মধ্যে বরিশাল জেলায় নতুন ১২৬ জন নিয়ে মোট ১৬ হাজার ৪৪৯ জন, পটুয়াখালীতে নতুন ৫৮ জন নিয়ে মোট ৫ হাজার ৪৯৩ জন, ভোলায় নতুন ১১৮ জনসহ মোট ৫ হাজার ৪২৭ জন, পিরোজপুরে নতুন ৩২ জনসহ মোট ৪ হাজার ৯২৬ জন, বরগুনায় নতুন ২৭ জনসহ মোট ৩ হাজার ৪৪৩ জন ও ঝালকাঠিতে নতুন ১৬ জন নিয়ে মোট ৪ হাজার ৩৮১ জন রয়েছেন।

এদিকে শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালকের দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় শুধু বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের করোনার আইসোলেশন ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে সাতজন এবং করোনায় আক্রান্ত হয়ে করোনা ওয়ার্ডে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। যা নিয়ে শুধু শেবাচিম হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডেই উপসর্গ নিয়ে ৮৮৪ জন এবং করোনা ওয়ার্ডে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৩৫৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করা ৮৮৪ জনের মধ্যে ৫০ জনের কোভিড টেস্টের রিপোর্ট এখনও হাতে পাওয়া যায়নি।

ওই হাসপাতাল পরিচালক কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় (বৃহস্পতিবার) সকাল পর্যন্ত শেবাচিমের করোনার আইসোলেশন ওয়ার্ডে ১৭ জন ও করোনা ওয়ার্ডে ১১ জন ভর্তি হয়েছেন। করোনা ও আইসোলেশন ওয়ার্ডে এখন ২০৪ জন চিকিৎসাধীন। তাদের মধ্যে ৬৬ জন করোনা ওয়ার্ডে এবং ১৩৮ জন আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আরটি পিসিআর ল্যাবে মোট ১৯৩ জন করোনা পরীক্ষা করান। এর মধ্যে ৩৪ দশমিক ৭১ শতাংশ পজিটিভ শনাক্তের হার।

 

অর্থসূচক/এএইচআর