রূপচর্চায় পুদিনা পাতার নানা গুণ

অর্থসূচক ডেস্ক

0
357

পুদিনা পাতা ত্বককে সুস্থ রাখে। পুদিনা পাতা একটি চমৎকার ক্লিনজার, টোনার এবং ময়েশ্চারাইজার হিসেবে কাজ করে। আসুন জেনে নিই রূপচর্চায় পুদিনা পাতার নানা গুণের কথা।

ব্রণের দাগ দূর করে

পুদিনা পাতায় থাকা স্যালিসিলিক অ্যাসিড এবং ভিটামিন এ ত্বকের তেলক্ষরণ নিয়ন্ত্রণ করে। তৈলাক্ত ত্বকে ব্রণ ফেটে যাওয়ার প্রবণতা বেশি থাকে ও এতে দাগ হয়ে যায়। পুদিনা পাতার অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টি-ফাঙ্গাল বৈশিষ্ট্য ত্বকের প্রদাহ রোধ করে এবং ব্রণ দূর করে। পুদিনা পাতার পেস্ট ত্বকে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রাখলে ত্বকের সূক্ষ্ম ছিদ্রগুলোও পরিষ্কার হবে।

ক্ষত নিরাময়

পুদিনার শক্তিশালী অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্য আছে। যা ত্বকের কাটা, ক্ষত, মশার কামড়, জ্বালা-পোড়া এবং চুলকানি নিরাময়ে সহায়তা করে। সেক্ষেত্রে পুদিনা পাতার রস বের করে আক্রান্ত স্থানে লাগাতে হবে।

ত্বকের উজ্জ্বলতা

পুদিনা পাতা অ্যাস্ট্রিনজেন্ট হিসেবে কাজ করে যা ত্বকের স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনে। এটি কোষের ছিদ্র থেকে ময়লা দূর করে এবং কোমলতা ফিরিয়ে আনে। পাশাপাশি ত্বকের রক্ত ​​সঞ্চালন দ্রুত করে। বলিরেখা এবং সূক্ষ্ম রেখাও দূর করে। এর জন্য মুখে পুদিনা পাতার প্যাক লাগিয়ে ২০-২৫ মিনিট রাখুন। এরপর পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

পুদিনার অ্যান্টি-সেপটিক বৈশিষ্ট্য ত্বকে দাগ ও ফুসকুড়ি হতে দেয় না। সরাসরি সূর্যের আলোতে দীর্ঘ সময় ধরে ত্বকের ক্ষতিও কমায় পুদিনার রস। এরজন্য অন্তত প্রতিমাসে একবার ত্বকে পুদিনা পাতার রস মাখুন।

ডার্ক সার্কেল কমায়

পুদিনা পাতায় থাকা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট চোখের নিচের কালো দাগ দূর করে। এর জন্য সারা রাত ডার্ক সার্কেলের ওপর পুদিনা পাতা বেটে লাগিয়ে রাখুন। এটি চোখের নিচে ত্বকের রঙ হালকা করবে।

অর্থসূচক/এসএ/