বিশ্বের দ্রুততম মানব এখন মার্সেল জ্যাকবস

0
144

টোকিও অলিম্পিকের দ্রুততম মানব হয়েছেন ইতালিয় অ্যাথলেট লেমন্ত মার্সেল জ্যাকবস। এই প্রথম একজন ইতালির অ্যাথলিট অলিম্পিকে একশ মিটার দৌড়ে জিতলেন। ২৬ বছর বয়সী জেকবস নতুন ইউরোপীয় রেকর্ডও করেছেন। তিনি একশ মিটার দৌড়েছেন নয় দশমিক আট সেকেন্ডে। আমেরিকার ফ্রেড কের্লিকে টপকে গিয়ে জেকবস জেতেন।

৯.৮৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে এই ইভেন্টের রুপা জিতেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ফ্রেড কারলি। ৯.৮৯ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ জিতেছেন কানাডার আন্দ্রে দি গ্রাস। তিনজনই ক্যারিয়ারের সেরা টাইমিং করেছেন আজ।

অলিম্পিকে সোনা জয়ের পর জ্যাকবস বলেছেন, ‘অলিম্পিকে পদক জেতা আমার ছোট বেলার স্বপ্ন ছিল। ফাইনালে দৌড়ানো এবং জেতা; এটা স্বপ্নটাকে সত্যি করেছে। আমি আমার পরিবারকে ধন্যবাদ জানাতে চাই, যারা আমাকে সবসময় সমর্থন দিয়েছে। আমার বাচ্চারা, মা; যিনি আমার এক নম্বর ভক্ত সেই ছোটবেলা থেকে এবং আমার দলকে ধন্যবাদ জানাতে চাই, যারা আমাকে অনুসরণ করেছে, সমর্থকদেরও।’

তার জন্ম অবশ্য আমেরিকায়। কিন্তু তার মা ছিলেন ইতালির মেয়ে। এক মাস বয়সে মায়ের সঙ্গে তিনি ইউরোপে চলে আসেন। এই বছরে দুই বার তিনি ১০ সেকেন্ডের কমে একশ মিটার দৌড়েছেন। জেকবস একশ মিটার দৌড়ে জেতার ১০ মিনিটের মধ্যেই ইতালির তামবেরি পুরুষদের হাইজাম্পে সোনা জেতেন।

গত অলিম্পিকে জ্যামাইকার উসাইন বোল্ট ৯.৮১ সেকেন্ড সময় নিয়ে সোনা জিতেছিলেন। তার চেয়ে ০.১ সেকেন্ড কম সময় নিয়েছেন মার্সেল জ্যাকবস। অবশ্য বোল্টের বিশ্বরেকর্ডের ধারেকাছেও যেতে পারেননি জ্যাকবস।

২০১২ সালের লন্ডন অলিম্পিকে ৯.৬৩ সেকেন্ড সময় নিয়ে অলিম্পিকের রেকর্ড গড়েছিলেন উসাইন বোল্ট। বিশ্বরেকর্ডটি তার আরো আগের। ২০০৯ সালে ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে ৯.৫৮ সেকেন্ড সময় নিয়ে বিশ্বরেকর্ড গড়ে ছিলেন তিনি। এক যুগ ধরে অলিম্পিকে ১০০ মিটার স্প্রিন্টের রাজা ছিলেন উসাইন বোল্ট। মুগ্ধতা ভরে তাঁর দৌড় দেখেছে বিশ্ব। এবারের টোকিও অলিম্পিকে নেই তিনি। রিওতেই জানিয়েছিলেন অলিম্পিকে আর দেখা যাবে না তার দৌড়। ফলে ১৩ বছর পর বোল্টের জায়গা দখল করে নিল ইতালির মার্সেল জ্যাকবস। সূত্র: ডিডাব্লিউ, পার্সটুডে, রয়টর্স, এপি, এএফপি

অর্থসূচক/এএইচআর