মাগুরায় ফ্রি ফায়ার-পাবজি খেলা নিয়ে বিরোধে স্কুলছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা

প্রতিনিধি

0
199

মাগুরায় বন্ধুর ছুরিকাঘাতে গোলাম রসূল (১৫) নামে এক কিশোর নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) রাতে সদর উপজেলার বেরইল পলিতা গ্রামের উত্তর পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত কাজী গোলাম রসুল (১৫) বেরইর পলিতা গ্রামের কাজী রওনক হোসেনের ছেলে। সে বেরইল পলিতা আলহাজ্ব কাজী আব্দুল ওয়াহেদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র।

এলাকাবাসী জানান, বেরইল পলিতা গ্রামের উত্তর পাড়ার রওনক কাজীর ছেলে গোলাম রসূল তারই বন্ধু একই গ্রামের দক্ষিণ পাড়ার শহিদুল ইসলামের ছেলে সজিবের ইমেইল অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে নিজের মোবাইলে গেম খেলতো। সজিব বিষয়টি জানতে পারলে মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে উভয়ের মধ্যে বাগবিতণ্ডার সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে সজিব কাছে থাকা ছুরি দিয়ে গোলাম রসূলের বুকে আঘাত করে। এতে গোলাম রসূল গুরুতর আহত হয়। ঘটনার পর পরিবারের লোকজন তাকে মাগুরা ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাত আনুমানিক সাড়ে ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

বেরইল পলিতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খোন্দকার মহব্বত আলী জানান, রাতে বেরইল পলিতা দক্ষিণপাড়ায় নূর আলমের বাড়ির সামনের সড়কে দাঁড়িয়েছিল রসুল। এসময় কয়েকজন এসে তাকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন রসুলকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে মাগুরা ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. এনামুল কবির জানান, হাসপাতালে আনার আগেই ছেলেটির মৃত্যু হয়েছে। তার বুকে ধারালো অস্ত্রের জখমের চিহ্ন রয়েছে।

নিহত রসুলের পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে মাগুরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জয়নুল আবেদিন বলেন, অনলাইনে ফ্রি ফায়ার ও পাবজি খেলা নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে রসুলের বিরোধ চলছিল। এর জেরেই এ হত্যার ঘটনা ঘটে থাককে পরে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের জন্য তার মরদেহ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনার তদন্ত চলছে।

অর্থসূচক/কেএসআর