দেশে করোনায় মৃত্যুতে ফের রেকর্ড

করোনা মহামারির তাণ্ডবে টালমাটাল বিশ্ব। বর্তমানে বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে চলছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ। এর মধ্যে এপ্রিল মাসে দেশে হঠাৎ করেই করোনা রোগী শনাক্ত ও মৃত্যুতে ব্যাপক উল্লম্ফন হয়। মাঝে কিছুদিন শনাক্ত ও মৃত্যু কমলেও আবারও ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে করোনা। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন রোগী শনাক্ত ও মৃত্যু বেড়েছে। এর ফলে দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা ১৮ হাজার ছাড়িয়েছে। এছাড়া সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশে রেকর্ড সংখ্যক মৃত্যু হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১৩ হাজার ৩২১ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে। ১২ জুলাই দেশে করোনা শনাক্ত হয় ১৩ হাজার ৭৬৮ জনের, যা একদিনে এ যাবতকালের সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড।

আগের সাত দিনে দেশে যথাক্রমে ১১৫৭৮, ৮৪৮৯, ১২১৪৮, ১২২৩৬, ১২৩৮৩, ১২১৯৮ ও ১৩৭৬৮ জন রোগী শনাক্ত হয়।

সর্বশেষ তথ্য অনুসারে দেশে নভেল করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১ লাখ ১৭ হাজার ৩১০ জনে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৪৫ হাজার ১২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্ত হার ২৯ দশমিক ৫৯ শতাংশ। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ছিল ২৯ দশমিক ০৯ শতাংশ।

এর আগের ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা করা হয় ৩৯ হাজার ৮০৬টি। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষার করা হয়েছে ৭৩ লাখ ৩৯৯ জনের। মোট শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ৩০ শতাংশ।

আজ সোমবার (১৯ জুলাই) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।


একনজরে দেশের করোনার চিত্র

নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন: ১৩৩২১ জন

মোট আক্রান্তের সংখ্যা: ১১১৭৩১০ জন

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে: ২৩১ জনের

মোট মৃত্যু হয়েছে: ১৮১২৫ জনের

২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন: ৯৩৩৫ জন

মোট সুস্থ হয়েছেন: ৯৪১৩৪৩ জন


গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ২৩১ জন মারা গেছেন, যা একদিনে এযাবৎ কালের সর্বোচ্চ মৃত্যু। এর আগে ১১ জুলাই করোনায় মারা যান ২৩০ জন।

গত সাত দিনে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন যথাক্রমে ২২৫, ২০৪, ১৮৭, ২২৬, ২১০, ২০৩ ও ২২০ জন।

সর্বশেষ তথ্য অনুসারে দেশে করোনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৮ হাজার ১২৫ জনে। মোট শনাক্তকৃত রোগীর বিপরীতে মৃত্যুর হার এক দশমিক ৬২ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ৯ হাজার ৩৩৫ জন সুস্থ হয়েছেন বলে জানানো হয়েছে। দেশে এখন পর্যন্ত করোনা থেকে মোট সুস্থ হয়েছেন নয় লাখ ৪১ হাজার ৩৪৩ জন। মোট শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৪ দশমিক শুন্য ২৫ শতাংশ।

অর্থসূচক/কেএসআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...