লকডাউন আতঙ্কে একদিনে ডিএসইএক্স হারাল ১০০ পয়েন্ট

লকডাউন আতঙ্কে রোববার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) মূল্য সূচকের ব্যাপক পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। এদিন ডিএসই প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স ১০০ পয়েন্ট নিচে নেমে গেছে। তবে আজ ডিএসইতে টাকার অংকে লেনদেন কিছুটা বেড়েছে। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) একই চিত্রে লেনদেন শেষ হয়েছে।

ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

প্রসঙ্গত, দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে আগামী ১ জুলাই থেকে দেশে কঠোর লকডাউন ঘোষণা করা হবে। আর এই সময়ে পুঁজিবাজার বন্ধ থাকেবে বলে আশংকা করে অনেক বিনিয়োগকারী আতঙ্কে শেয়ার বিক্রি করে দিচ্ছেন। ফলে বাজারে ব্যাপক দরপতন হচ্ছে। তবে বাস্তবে লকডাউনে বাজার বন্ধ থাকার কোনো আশংকাই নেই বলে জানা গেছে। বিনিয়োগকারীদের এই আশংকাকে অর্থহীন মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

রোববার ডিএসইতে ১ হাজার ৭৪০ কোটি ১৮ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আজ ডিএসইতে আগের দিন থেকে ১৪২ কোটি ২৩ লাখ টাকা বেশি লেনদেন হয়েছে। বৃহস্পতিবার লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৫৯৭ কোটি ৯৫ লাখ টাকার।

এদিন ডিএসই প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স ১০০ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৫ হাজার ৯৯২ পয়েন্টে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই৩০ সূচক ৩০ পয়েন্ট এবং ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ১৪ পয়েন্ট কমেছে।

রোববার ডিএসইতে মোট ৩৭২টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৫৪টির, দর কমেছে ৩০৬টির এবং দর অপরিবর্তিত রয়েছে ১২টি কোম্পানির।

অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই কমেছে ২৯২ পয়েন্ট। সূচকটি ১৭ হাজার ৩৬৪ পয়েন্টে অবস্থান করছে। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২১৪ কোটি ৫ লাখ টাকার শেয়ার।

সিএসইতে মোট ৩১১টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৫৪টির, দর কমেছে ২৪৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৩টির।

অর্থসূচক/এসএ/

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...