ভারতে ৮০ দিনের মধ্যে সবচেয়ে কম সংক্রমণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

0
115

ধীরে ধীরে করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে ভারতে। দীর্ঘ ৮০ দিন পর ২৪ ঘণ্টায় ৬০ হাজারের নিচে নেমেছে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। এই সময়ে নতুন করে সেখানে শনাক্ত হয়েছেন ৫৮ হাজার ৪১৯ জন। এ নিয়ে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ৯৮ লাখ ৮১ হাজার ৯৬৫ জনে।

গত ২৪ ঘণ্টা অর্থাৎ এক দিনের এমন হিসেব কিছুটা হলেও স্বস্তি দিচ্ছে বলে মনে করছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। অবশ্য করোনার বিরুদ্ধে সার্বিক প্রতিরোধ গড়ে তুলতে যে হরে টিকাদান প্রয়োজন, তা থেকে ভারত এখনও অনেক দূরে বলে ভাষ্য তাদের।

কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে আজ রোববার (২০ জুন) সকালে এসব তথ্য দিয়েছে আনন্দবাজার পত্রিকাসহ একাধিক সংবাদ মাধ্যম।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন ৫৮ হাজার ৪১৯ জন। শেষ বার গত ৩১ মার্চ দেশে দৈনিক সংক্রমণ ৬০ হাজারের নিচে ছিল (৫৩,৪৮০)। তার পর ৮০ দিন পর দৈনিক সংক্রমণ এতটা নামল।

এখনও পর্যন্ত ভারতে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা ২ কোটি ৯৮ লাখ ৮১ হাজার ৯৬৫ জন। বর্তমানে দেশে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৭ লাখ ২৯ হাজার ২৪৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার প্রকোপে প্রাণ হারিয়েছেন ১ হাজার ৫৭৬ জন রোগী। এখনও পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৮৬ হাজার ৭১৩ জনের।

দৈনিক সংক্রমণ কমার পাশাপাশি সুস্থতায় বৃদ্ধিও আশা জোগাচ্ছে চিকিৎসক মহলকে। গত ২৪ ঘণ্টায় ৮৭ হাজার ৬১৯ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। মোট আক্রান্তের মধ্যে এখনও পর্যন্ত ২ কোটি ৮৭ লাখ ৬৬ হাজার ৯ জন রোগী করোনার প্রকোপ থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এ ছাড়াও, লাগাতার দৈনিক সংক্রমণের চেয়ে দৈনিক সুস্থতা বেশি হওয়াও ভাল লক্ষণ বলে মনে করা হচ্ছে।

দিল্লি, মহারাষ্ট্র, উত্তরপ্রদেশ, কর্ণাটকে আগের তুলনায় অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে সংক্রমণ। এর মধ্যে অবশ্য ভারতে শিগগিরই করোনার তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে তা যাতে মারাত্মক আকার ধারণ না করে সেজন্য আগাম প্রস্তুতি নিচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকারসহ সমস্ত রাজ্য সরকার।

অর্থসূচক/কেএসআর