ভ্যাকসিন পরিবহনে সক্ষমতা বৃদ্ধি করেছে এমিরেটস

অর্থসূচক ডেস্ক

0
97

এমিরেটস এয়ারলাইনের কার্গো পরিবহন শাখা এমিরেটস স্কাইকার্গো অদ্যবধি সাড়ে ৭ কোটির অধিক করোনা ভ্যাকসিন ডোজ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পরিবহন করেছে। ২৬০টি ফ্লাইটে ৬০টি দেশে এসকল ভ্যাকসিন পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। তবে, জুন মাসের মধ্যেই এই সংখ্যা ১০ কোটিতে পৌঁছাবে বলে আশা প্রকাশ করছে এমিরেটস।

বিশ্বব্যাপী ভ্যাকসিন পরিবহন চাহিদা এমান্বয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং এর সাথে তাল মিলিয়ে এমিরেটস স্কাইকার্গো দুবাইয়ে তাদের তাপ সংবেদনশীল ওষুধ ও ভ্যাকসিন হ্যান্ডলিংয়ে সক্ষমতাও বৃদ্ধি করেছে। দুবাই বিমানবন্ধরের ফার্মা ফ্যসিলিটির ধারনক্ষমতা আরও বাড়ানো হয়েছে।

স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিয়ন্ত্রিত শীতল স্থাপনায় যুক্ত হয়েছে আরও ২৬০০ বর্গমিটার এলাকা। ভ্যাকসিন সংরক্ষণ ও হ্যান্ডিলিং-এর জন্য নির্মিত স্থাপনাটিতে এখন একইসঙ্গে প্রায় ৬-৯ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন ২-২৫ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করা সম্ভব।

অন্যতম প্রথম এয়ারলাইন হিসেবে এমিরেটস স্কাইকার্গো গতবছরের অক্টোবরে আকাশপথে ভ্যাকসিন পরিবহন শুরু করে এবং দুবাই বিমানবন্দরে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের জন্য স্বতন্ত্র একটি জিডিটি সনদপ্রাপ্ত এয়ারসাইড হাব প্রতিষ্ঠা করে।

এমিরেটস স্কাইকার্গো ডিপি ওয়ার্ল্ড, ইন্টারন্যাশনাল হিউম্যানিটারিয়া সিটি, দুবাই এয়ারপোর্টসের সঙ্গে একটি লজিস্টিক অ্যালায়েন্স গড়ে তুলেছে, লক্ষ্য হলো উন্নয়নশীল দেশগুলো দ্রুততার সঙ্গে করোনা ভ্যাকসিন পৌঁছে দেওয়া। কোভ্যাক্স উদ্যোগের সঙ্গেও যুক্ত রয়েছে এয়ারলাইনটি।

অর্থসূচক/কেএসআর