বিয়ের আসরে পাত্রী ‘মমতা ব্যানার্জি’, পাত্র সোশ্যালিজম!

অর্থসূচক ডেস্ক

0
178

ধুমধাম করে বিয়ের আয়োজন। বিয়ের আসরে পাত্রী মমতা ব্যানার্জি, পাত্র সোশ্যালিজম। বিয়ের তারিখ ১৩ জুন। স্থান তামিলনাড়ুর সালেম জেলা। এমনই এক আমন্ত্রণপত্র ভাইরাল হয়ে গিয়েছে নেট দুনিয়ায়। প্রাথমিকভাবে চমকে উঠে অনেকেই সেদিকে চোখ কচলে দেখছেন। তারপর আস্তে আস্তে পরিষ্কার হচ্ছে আসল ব্যাপারটা।

আসলে চার পুরুষ ধরে বামপন্থায় অটল বিশ্বাস সালেম জেলার সিপিআইয়ের জেলা সম্পাদক মোহনের। সেই কারণেই ছেলের এমন নাম রেখেছেন তিনি। এদিকে পাত্রী মমতা ব্যানার্জির বাড়িও তাদের বাড়ির পাশেই। সেই পরিবার কংগ্রেস সমর্থক। বছর বিশেক আগে যখন মেয়ের জন্ম হয়, তখন একদা কংগ্রেস নেত্রী থাকা তৃণমূল নেত্রীর নামেই নাম রাখা হয় সেই শিশুকন্যার।

চমকের এখানেই শেষ নয়। মোহনের অন্য দুই ছেলের নাম কমিউনিজম এবং লেনিনিজম! নব্বইয়ের দশকে সোভিয়েত ইউনিয়ন ভেঙে যাওয়ার সময় জন্ম নেওয়া প্রথম সন্তানের নাম রাখা হয় কমিউনিজম। পরের সন্তান লেনিনিজম। এরপর জন্ম হয় সোশ্যালিজমের। আসলে এই অঞ্চলে এমন নাম খুব ব্যতিক্রম নয়।

মোহন জানান, এখানে অনেকেরই নাম ভিয়েতনাম, মস্কো, রাশিয়া কিংবা চেকোস্লোভাকিয়া ইত্যাদি। বামপন্থার প্রতি প্রগাঢ় বিশ্বাসের কারণেই এমন সব নাম রাখা হয় নবজাতকদের। আর সেই কারণেই ছেলেদের এমন নাম রাখার ক্ষেত্রে কোনও দ্বিধা ছিল না তার। এমনকী এরপর মেয়ে হলে তার নাম মার্কসিয়া রাখা হবে বলেও ঠিক করে রেখেছিলেন তিনি।

কেবল নাম রাখাই নয়, ছেলেদের সকলকেই বামপন্থী আদর্শে তিনি দীক্ষিত করে তুলেছেন বলেও জানান মোহন। বলেন, এই এলাকায় গত ৬০ বছর ধরেই বামপন্থী ও কংগ্রেস সমর্থকদের সহাবস্থান। এবার তাই পাশের বাড়ির মমতার সঙ্গেই ছেলের বিয়ে দেওয়া মনস্থ করে ফেলেছেন মোহন।

অর্থসূচক/কেএসআর