নিয়ালকোর লেনদেনের মাধ্যমে সিএসইর এসএমই প্লাটফর্ম চালু

0
107

 বিশ্বের অন্যান্য দেশের মত বংলাদেশেও স্টক এক্সচেঞ্জের এসএমই প্লাটফর্ম পুঁজিবাজার তথা অর্থনীতিতে ভূমিকা রাখবে তা দীর্ঘ দিনের প্রত্যাশা। এই প্রত্যাশার ধারাবাহিকতায় গত ১৫ এপ্রিল পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) তাদের ৭৭০তম সভায় নিয়ালকো অ্যালয়েস লিমিটেডকে কোয়ালিফাইড ইনভেস্টর অফার বাই স্মল ক্যাপিটাল কোম্পানিজের (কিউআইও) মাধ্যমে অর্থ উত্তোলনের অনুমোদন দেয়।

প্রথম অনুমোদন পাওয়া এসএমই কোম্পানি নিয়ালকো অ্যালয়েস লিমিটেডের লেনদেন শুরুর মাধ্যমে আজ বৃহস্পতিবার (১০ জুন) উম্মোচিত হলো সিএসইর এসএমই ­প্লাটফর্ম । এসএমই  বোর্ড এ কোম্পানিটির প্রথম লেনদেনের সুযোগ করে দেওয়ার মাধ্যমে চিটাগাং স্টক এক্সচেঞ্জ লিমিটেড (সিএসই) এসএমই প্লাটফর্মের জন্য পুঁজিবাজারের ইতিহাসে স্থান করে নিল। আজ সিএসই এর চট্টগ্রামস্থ প্রধান কাযালয়ে এই নতুন কোম্পানীটির ট্রেডিং উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় ।

অনুষ্ঠানে সিএসইর চেয়ারম্যান আসিফ ইব্রাহীম প্রধান অতিথি ছিলেন ছিলেন। এতে আরো উপস্থিত ছিলেন সিএসইর পরিচালকবৃন্দ, নিয়ালকো অ্যালয়স এর সম্মানিত চেয়ারম্যান ও পরিচালক, ইস্যু ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার এবং সিএসই এর উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ।

সিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মামুন-উর-রশিদ স্বাগত বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন, “সিএসই, সূচনালগ্ন থেকেই জবাবদিহিতামূলক, স্বচ্ছ, এবং স্টেট অব দা আর্ট প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে এবং ১৯৯৫ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ যাত্রায় বাংলাদেশের পুঁজিবাজারের উন্নয়নে বিভিন্ন উল্লেখযোগ্য উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। পৃথীবীর অন্যান্য স্টক এক্সচেঞ্জের মতো ডিম্যাটারিয়ালাইজড সেটেলমেন্টের জন্য সিডিবিএল প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এছাড়াও প্রথম স্বয়ংক্রিয় রিয়েল-টাইম ট্রেডিং সিস্টেম চালু করে এবং বিনেয়োগকারীদের জন্য শিক্ষার সুযোগ প্রদানের জন্য বিআইসিএম স্থাপনের ক্ষেত্রেও অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে। সেই ধারাবাহিকতায় আজ প্রথমবারের মত নিয়ালকো অ্যালয়স লিমিটেডের লেনদেন শুরুর মাধ্যমে পুঁজিবাজার তথা সিএসইর এসএমই ­প্লাটফর্ম উন্মোচিত এই প্ল্যাটর্ফম এর মাধ্যমে এসএমই কোম্পানীগুলো একদিকে স্বীকৃতি পাবে, অন্যদিকে ব্যবসা সম্প্রসারণের সযোগ সৃষ্টি হবে। এতে এসএমই খাতের উন্নতি ত্বরান্বিত এবং  একই সঙ্গে এই খাত দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখবে হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন ।”

প্রধান অতিথি আসিফ ইব্রাহীম বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে আমাদের উন্নয়নশীল দেশ থেকে উন্নত দেশে উন্নিত হওয়ার স্বপ্ন দেখছি। এই স্বপ্ন পূরণের জন্য আমাদের প্রয়োজন অত্যন্ত দক্ষ ও বলিষ্ঠ শক্তিশালী পুঁজিবাজার। সামনে সব ধরনের বিনিয়োগের জন্য বিনিয়োগের সিংহভাগ উৎস পুঁজিবাজার হতে হবে।

তিনি বলেন, বিএসইসিএর বর্তমান কমিশন দায়িত্ব নেয়ার পর পুঁজিবাজারের উন্নয়নে অনেক কাজ করেছে। তাঁরা তাদের প্রজ্ঞা, মেধা ও দূরদর্শী চিন্তার মাধ্যমে স্বল্পতম সময়ে পুঁজিবাজারের উন্নয়ন, নিয়ন্ত্রণ ও বিভিন্ন সংস্কারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। এই সময়ে কমিশনের বেশকিছু উদ্যোগ বিনিয়োগকারী এবং অন্যান্য স্টেকহোল্ডারেদের আস্থা বৃদ্ধিতে ব্যাপক ভূমিকা রেখেছে। ইতিমধ্যে কমিশনারদের অসামান্য এবং গতিশীল সিদ্ধান্তের ফলে আমরা শেয়ারবাজারের ইতিবাচক প্রভাব লক্ষ্য করেছি এবং এই নিরলস প্রচষ্টা সামনের দিনগুলোতে বাজারে আরও অধিকতার টেকসই প্রবৃদ্ধি নিশ্চিত করবে বলে আশা করছি।

তিনি আরও বলেন, বর্তমান বিশ্বায়নের যুগে ক্ষুদ্র ও মাঝারি এন্টারপ্রাইজ (এসএসই)গুলো দেশের শিল্পায়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে । বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল দেশের সার্বিক অর্থনৈতিক উন্নয়নে স্বল্প মূলধনী কোম্পানীগুলোর উল্লেখযোগ্য ভূমিকা অনস্বীকার্য। এ খাতটি শ্রমঘন এবং এর উৎপাদন সময়কাল স্বল্প হওয়ায় জাতীয় আয় বৃদ্ধি ও কর্মসংস্খান সৃষ্টিতে দ্রুত অবদান রাখতে সক্ষম।

সিএসইর চেয়ারম্যান বলেন, বর্তমান সরকারও এসএসই খাতের উন্নয়নকে শিল্পায়নের চালিকাশক্তি হিসেবে গ্রহণ করে এ খাতকে অগ্রাধিকার খাত হিসেবে চিহ্নত করেছে। বাংলাদেশের এসএমই  খাতকে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হয়েছে সপ্তম পঞ্চবাষিকী পরিকল্পনায় এবং শিল্পনীতি ২০১৬ তে। চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের স্বল্প মূলধনী কোম্পানীসমূহের প্ল্যাটফর্মে তালিকাভুক্তির মাধ্যমে স্বল্প মূলধনী কোম্পানিগুলো সাশ্রয়ী তহবিল সংগ্রহ করতে সক্ষম হবে।

নিয়ালকো অ্যালয়েজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান গাজী মোকাররম আলী চৌধুরী বলেন, আমরা প্রথম কোম্পানী হিসেবে সিএসই এর এস্এমই বোর্ডে লিস্টেড হতে পেরে আনন্দিত এবং সিএসই ,বিএসইসি ও সর্বোপরি সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ।”

পরিশেষে রিং দি বেল (ঘন্টা বাদন) এর মাধ্যমে নিয়ালকো এলয়েজ লিমিটেড এর ট্রেডিং কার্যক্রম এর শুভ উদ্বোধন করা হয়। ফুল এবং ক্রেস্ট প্রদানের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।