করোনাঃ এবারও ১০ হাজার কোটি টাকার থোক বরাদ্দ

0
122

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) অতিমারি মোকাবেলায় জরুরি চাহিদা মেটাতে চলতি অর্থবছরের (২০২০-২১) বাজেটে ১০ হাজার কোটি টাকার থোক বরাদ্দ রাখা হয়েছে। আগামী অর্থবছরের ঘোষিত বাজেটেও এই খাতে ১০ হাজার কোটি টাকার থোক বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (৩ জুন) জাতীয় সংসদে অর্থমন্ত্রী আহম মুস্তফা কামাল এই বাজেট উত্থাপন করেন।

এ প্রসঙ্গে বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী বলেন, বিগত বাজেটে কোভিড-১৯ মোকাবিলায় স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের আওতায় বিশেষ কার্যক্রম বাস্তবায়নের জন্য আমরা বিপুল বরাদ্দ রেখেছিলাম। এ ছাড়া যে কোনো জরুরি চাহিদা মেটানোর জন্য ১০ হাজার কোটি টাকার থোক বরাদ্দ রেখেছিলাম। তবে প্রথম প্রাদুর্ভাবের পর বছর ঘুরে এলেও বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারির ভয়াবহ প্রকোপ এখনও বিদ্যমান রয়েছে। কাজেই আমি বিগত বাজেটের ন্যায় এবারও অঙ্গীকার করছি এ মহামারি মোকাবিলায় যা করণীয় তার সবকিছুই সরকার করে যাবে। সে কারণে আগামী অর্থবছরেও কোভিড-১৯ মোকাবিলায় জরুরি চাহিদা মেটানোর জন্য পুনরায় ১০ হাজার কোটি টাকার থোক বরাদ্দের প্রস্তাব করছি।

করোনার সংক্রমণ কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এলেও দুর্যোগের আশংকা শেষ হচ্ছে না। বরং বিশেষজ্ঞরা করোনার তৃতীয় ঢেওয়ের আশংকা করছেন। আর এই ঢেও আগের দুটি ঢেওয়ের চেয়ে ভয়া হতে পারে বলে তাদের ধারণা। এমন বাস্তবতা থেকেই সম্ভবত করোনা মোকাবেলায় ১০ হাজার কোটি টাকার থোক বরাদ্দ রাখার প্রস্তাব করা হয়েছে।