নন্দীগ্রামে ভোট লুট হয়েছে, আদালতে যাব: মমতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

0
160

ভোট গণনার শুরু থেকেই সবার নজর ছিল নন্দীগ্রামের দিকে। কে জেতেন এ আসনে তা নিয়ে ছিল জল্পনা। কারণ এই আসনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। সন্ধ্যায় ভারতীয় গণমাধ্যম জানালো, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ১৯৫৩ ভোটে হারিয়েছেন শুভেন্দু। যদিও এর আগে ভারতে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে মমতার জয় নিয়ে খবর প্রকাশিত হয়।

তবে বিধানসভা নির্বাচনে আলোচিত নন্দীগ্রাম আসনে ভোট লুট হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই আসনে ভোটের ফল নিয়ে নাটকীয়তা তৈরি হওয়ার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি এ অভিযোগ করেন বলে জানিয়েছে আনন্দবাজার পত্রিকা।

মমতা বলেন, ‘নন্দীগ্রামের মানুষের রায় মেনে নিচ্ছি। কিন্তু ওখানে ভোট লুঠ হয়েছে। আদালতে যাব আমরা।’

নন্দীগ্রামে মমতা জিতেছেন, নাকি শুভেন্দু অধিকারী জিতেছেন তা নিয়ে ধোঁয়াশা দেখা দেয় সন্ধ্যায়। সংবাদসংস্থা এএনআই টুইট করে জানায়, হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পরে ১২০০ ভোটে জিতেছেন মমতা। কিন্তু পরে জানা যায় শুভেন্দু জিতেছেন। তিনি নিজেই জানান সে কথা।

এদিকে, নিজের হার মেনে নিয়ে দলের জয়ের জন্য পশ্চিমবঙ্গের মানুষকে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন মমতা। তিনি বলেন, বাংলার জয়ের জন্য সকলকে অভিনন্দন। বাংলার জয়, মানুষের জয়।

আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সার্ভারের ত্রুটির জেরে দুপুরে এমনিতেই চল্লিশ মিনিট ভোটগণনা বন্ধ ছিল নন্দীগ্রামে। তার পর মমতার জয়ের খবর সামনে আসার পরও কোনো তথ্য প্রকাশ করতে পারেনি কমিশন। তার পরেই জানা যায়, শুভেন্দু জয়ী হয়েছেন। তবে কমিশনের পক্ষ থেকে এখনও পর্যন্ত এ নিয়ে কোনো বিবৃতি প্রকাশ করা হয়নি।

অর্থসূচক/কেএসআর