অপেক্ষা শেষ, খুলছে পুঁজিবাজার

0
947
ব্রোকারহাউজ-ফাইল ফটো

কি হয় না হয় তা নিয়ে রীতিমতো অপেক্ষায় ছিলো পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। কারণ ব্যাংকের সিদ্ধান্তের ওপর ভিত্তি করে নেওয়া হবে সিদ্ধান্ত। অবশেষে ব্যাংক খোলার ঘোষণায় কিছুটা স্বস্তি মিললো। বৃহস্পতিবার থেকে চালু হবে পুঁজিবাজারের কার্যক্রমও। বুধবার পহেলা বৈশাখের সরকারি ছুটির কারণে ব্যাংক ও পুঁজিবাজারে লেনদেন বন্ধ থাকবে।

আগামী ২১ এপ্রিল পর্যন্ত প্রতি কর্মদিবসে সকাল ১০টা থেকে বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত লেনদেন চলবে পুঁজিবাজারে। এ সময়ে প্রি-অপেনিং সেশন বন্ধ থাকবে এবং ১৫ মিনিট পোস্ট ক্লোজিং সেশন চালু থাকবে।

অর্থসূচককে বিষয়টি নিশ্চিত করে বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মোহাম্মদ রেজাউল করিম বলেন, ব্যাংক ছাড়া পুঁজিবাজারের কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। তাই আমরা চাইলেও ব্যাংক ছাড়া আমরা আমাদের কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারতাম না। এখন যেহেতু ব্যাংক খোলার সিদ্ধান্ত এলো আমাদের পুঁজিবাজারের কার্যক্রমও চলবে।

এর আগে বিএসইসির চেয়ারম্যান শিবলী রুবাইয়াত উল ইসলামও একই কথা জানান। তিনি বলেন, আমাদের সিদ্ধান্ত ব্যাংক খোলা থাকলে পুঁজিবাজারও খোলা থাকবে। আর ব্যাংক বন্ধ থাকলে লেনদেনও বন্ধ থাকবে।

প্রসঙ্গত, ব্যাংক বন্ধের সিদ্ধান্তের পর একসপ্তাহের জন্য পুঁজিবাজারও বন্ধের ঘোষণা দিয়েছিলো নিয়ন্ত্রণ সংস্থা। কিন্তু এরপর মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের মঙ্গলবারের (১৩ এপ্রিল) চিঠির পর ব্যাংকের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করার পর মত বদলায় বিএসইসিও।

করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় পরিস্থিতি সামাল দিতে বুধবার থেকে দেশে এক সপ্তাহের কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে সরকার। এর সঙ্গে মিল রেখে ১৪ থেকে ২১ এপ্রিল বাংলাদেশের সমস্ত তফসিলি ব্যাংক বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত জানিয়েছিলো বাংলাদেশ ব্যাংক।

অর্থসূচক/আরএ/