খুলতে পারে পুঁজিবাজার

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
550

ব্যাংকের সাথে পুঁজিবাজারে সম্পর্ক থাকায় ব্যাংক খোলা-বন্ধের ওপর নির্ভর করে পুঁজিবাজারের কার্যক্রম। আগামী ১৪ থেকে ২১ এপ্রিল সরকার ঘোষিত ‘সর্বাত্মক লকডাউনে’ ব্যাংক সেবা (বিশেষ প্রয়োজনে) সীমিত আকারে খোলা রাখার আজ যে চিঠি মন্ত্রী পরিষদ থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকে দেওয়া হয়েছে তা মেনে নিয়ে ব্যাংক খুললে এর পরেই চালু হবে পুঁজিবাজারের কার্যক্রম।

বিষয়টি অর্থসূচককে নিশ্চিত করে বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মোহাম্মদ রেজাউল করিম বলেন, ব্যাংক ছাড়া পুঁজিবাজারের কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। তাই আমরা চাইলেও এ সময়ে আমাদের কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারবো না। তবে, ব্যাংক খোলার সাথে সাথে আমরা বাজারের কার্যক্রম শুরু করব।

এর আগে বিএসইসির চেয়ারম্যান শিবলী রুবাইয়াত উল ইসলামও একই কথা জানান। তিনি বলেন, আমাদের সিদ্ধান্ত ব্যাংক খোলা থাকলে পুঁজিবাজারও খোলা থাকবে। আর ব্যাংক বন্ধ থাকলে লেনদেনও বন্ধ থাকবে।

এদিকে মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের চিঠিতে মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) বিশেষ প্রয়োজনে ব্যাংক সেবা প্রদানের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপ-সচিব মো. রেজাউল ইসলাম স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, ১৪ থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত ব্যাংকিংসেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা জারির জন্য আদেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

এর আগে সোমবার (১২ এপ্রিল) বাংলাদেশ ব্যাংক এক সার্কুলারে ১৪ এপ্রিল থেকে তফশিলি ব্যাংকগুলো বন্ধ রাখার নির্দেশনা দিয়েছিল।

সর্বশেষ, ব্যাংক চালু করার বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক কী সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে, সে বিষয়ে জানতে চাইলে তাতক্ষণিকভাবে কিছু জানাতে পারেনি সংশ্লিষ্টরা।

অর্থসূচক/আরএ/এমএস