করোনায় সব রেকর্ড ভেঙ্গে মৃত্যু ৮৩ জনের

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
135

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৮৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। যা একদিনে দেশে করোনায় মৃত্যুর নতুন রেকর্ড। এর আগে ১১ এপ্রিল একদিনে করোনায় ৭৮ জনের মৃত্যু হয়েছিল। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে নয় হাজার ৮২২ জনের। নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৭ হাজার ২০১ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ৯১ হাজার ৯৫৭ জনে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৭ হাজার ২০১ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে। গত বুধবার (০৭ এপ্রিল) করোনা রোগী শনাক্ত হয় সাত হাজার ৬২৬ জন। যা একদিনে এ যাবতকালের সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড।

আগের সাত দিনে দেশে যথাক্রমে ৫৮১৯, ৫৩৪৩, ৭৪৬২, ৬৮৫৪, ৭৬২৬, ৭২১৩ ও ৭০৭৫ জন রোগী শনাক্ত হয়।

সর্বশেষ তথ্য অনুসারে দেশে নভেল করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ৯১ হাজার ৯৫৭ জনে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৩৪ হাজার ৯৬৮ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। আর পরীক্ষাকৃত এসব নমুনার ২০ দশমিক ৬৯ শতাংশের মধ্যে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে।

গতকাল দেশে ২৯ হাজার ৩৭৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত দেশে মোট ৫০ লাখ ৩৭ হাজার ৩৮৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। আর মোট পরীক্ষার ১৩ দশমিক ৭৪ শতাংশ পজিটিভ।

আজ সোমবার (১২ এপ্রিল) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।


একনজরে দেশের করোনার চিত্র

নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন: ৭২০১ জন

মোট আক্রান্তের সংখ্যা: ৬৯১৯৫৭ জন

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে: ৮৩ জনের

মোট মৃত্যু হয়েছে: ৯৮২২ জনের

২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন: ৪৫২৩ জন

মোট সুস্থ হয়েছেন: ৫৮১১১৩ জন


গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৮৩ জন মারা গেছেন, যা এযাবতকালের সর্বোচ্চ মৃত্যু। এর আগে গতকাল রোববার (১১ এপ্রিল) মারা যান ৭৮ জন, যা একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু ছিল এটি  শনিবার (১০ এপ্রিল) করোনায় মারা যান ৭৭ জন। এর আগে ০৮ এপ্রিল মারা যান ৭৪ জন।

গত সাত দিনে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন যথাক্রমে ৭৮, ৭৭, ৬৩, ৭৪, ৬৩, ৬৬ ও ৫২ জন।

সর্বশেষ তথ্য অনুসারে দেশে করোনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে নয় হাজার ৮২২ জনে। মোট শনাক্তকৃত রোগীর বিপরীতে মৃত্যুর হার এক দশমিক ৪২ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ৪ হাজার ৫২৩ জন সুস্থ হয়েছেন বলে জানানো হয়েছে। দেশে এখন পর্যন্ত করোনা থেকে মোট সুস্থ হয়েছেন পাঁচ লাখ ৮১ হাজার ১১৩ জন। মোট শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৩ দশমিক ৯৮ শতাংশ।

অর্থসূচক/কেএসআর/এমএস