ফ্লোর প্রাইস তুলে নেওয়া সেই ৬৬ কোম্পানির বিষয়ে নতুন সিদ্ধান্ত

ফ্লোর প্রাইস প্রত্যাহার করে নেওয়া ৬৬ কোম্পানির বিষয়ে নতুন সিদ্ধান্ত নিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

আজ শনিবার (১০ এপ্রিল) বিএসইসি এই সংক্রান্ত একটি আদেশ জারি করেছে। যাতে বলা হয়েছে ওই ৬৬টি কোম্পানির শেয়ার এক দিনে সর্বোচ্চ কমতে পারবে ২ শতাংশ। তবে দাম বাড়ার ক্ষেত্রে আগের মতোই ১০ শতাংশ সীমা বহাল রয়েছে।

এ বিষয়ে বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মোহাম্মদ রেজাউল করিম অর্থসূচককে বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে বিনিয়োগকারীদের স্বার্থের কথা বিবেচনা করে ফ্লোর প্রাইস প্রত্যাহার করা ৬৬টি কোম্পানির শেয়ারের দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা ১০ শতাংশ এবং দাম কমার সর্বোচ্চ সীমা ২ শতাংশ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি কমিশন।

জানা গেছে, ৬৬ কোম্পানির ফ্লোর প্রাইস প্রত্যাহারের পরিপ্রেক্ষিতে পুঁজিবাজারে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। এর ফলে বিনিয়োগকারীরা ফ্লোর প্রাইস পুনর্বহালের দাবি জানায়। ওই দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ৬৬টি কোম্পানির শেয়ারের সর্বোচ্চ দাম বাড়া-কমার সীমা নির্ধারণ করে নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

প্রসঙ্গত, গত ৭ এপ্রিল বিএসইসির ৭৬৯তম কমিশন সভায় ৬৬টি কোম্পানির শেয়ারের ওপর থেকে ফ্লোর প্রাইস প্রত্যাহার করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ৮ এপ্রিল থেকে তা কার্যকর করা হয়। ফলে গত বুধবার পর্যন্ত পুঁজিবাজারে ১১০টি কোম্পানির শেয়ার ফ্লোর প্রাইসে আটকে ছিল। বৃহস্পতিবার ৬৬টি কোম্পানির শেয়ারের ওপর থেকে ফ্লোর প্রাইস প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে। এখনো ৪৪টি কোম্পানির শেয়ারে ফ্লোর প্রাইস বহাল রয়েছে। যা সহসাই তুলে নেওয়া হবে না বলে বিশ্বস্ত সূত্র অর্থসূচককে নিশ্চিত করেছে।

অর্থসূচক/আরএ/কেএসআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...