‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি

প্রতিনিধি

0
60

রাষ্ট্রবিরোধী ও উস্কানিমূলক বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে আটক ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলাম মাদানীর নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানিয়েছে হেফাজতে ইসলাম।

আজ বুধবার (০৭ এপ্রিল) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে নেত্রকোনা প্রেস ক্লাব ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলন করে এই দাবি জানানো হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন হেফাজত ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটি ও জেলার শাখার সদস্য মাওলানা আব্দুল কাইয়ুম, রফিকুল ইসলাম মাদানীর বড় ভাই রমজান মিয়া, চাচাতো ভাই নজরুল ইসলামসহ হেফাজতে ইসলামের নেতৃবৃন্দ।

সংবাদ সম্মেলনে বড় ভাই রমজান মিয়া বলেন, মাদানী গত সোমবার ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়ি নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার লেটিকান্দা গ্রামে আসেন। মঙ্গলবার ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে ওয়াজ মাহফিল শেষে রাতে গ্রামের বাড়িতে অবস্থান নেন। পরে দিবাগত রাত ২টার দিকে র‍্যাব পরিচয়ে বেশ কয়েকজন বাড়ি থেকে তাকে তুলে নিয়ে যায়। আমরা তার নিঃশর্ত মুক্তি চাই।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, রফিকুল ইসলাম মাদানীকে নিঃশর্ত মুক্তি না দিলে আগামীকাল মানববন্ধনসহ কঠোর আন্দোলনের ডাক দেওয়া হবে।

এর আগে রাষ্ট্রবিরোধী, উসকানিমূলক ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য এবং বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টার অভিযোগে রফিকুল ইসলাম মাদানীকে নেত্রকোনা থেকে আটক করার কথা জানায় র‍্যাব।

র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সিনিয়র সহকারী পরিচালক (এএসপি) ইমরান খান গণমাধ্যমকে বলেন, আজ (বুধবার) ভোরে মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানীকে নেত্রকোণার পূর্বধলা থেকে আটক করা হয়। আইনি প্রক্রিয়া অনুসরণ করে তাকে হস্তান্তর করা হবে।

পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মামলা হলে অবশ্যই থানা পুলিশের কাছে তাকে হস্তান্তর করা হবে।

এর আগে গত ২৫ মার্চ রাজধানীর মতিঝিল শাপলা চত্বরে ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদের মোদিবিরোধী মিছিল থেকে ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলামকে পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হয়। পরবর্তীতে তাকে আবার ছেড়ে দেওয়া হয়।

অর্থসূচক/কেএসআর