পশ্চিমবঙ্গের দ্বিতীয় দফা ভোটে ‘প্রেস্টিজ ফাইটে’ মমতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

0
226

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনে দ্বিতীয় ধাপের ভোটগ্রহণ আজ বৃহস্পতিবার (০১ এপ্রিল)। চারটি জেলার ৩০ আসনে স্থানীয় সময় সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। এর মধ্যে আলাদা করে গুরুত্ব পাচ্ছে নন্দীগ্রাম। সেখানে বিজেপির শুভেন্দু অধিকারী এবং তৃণমূলের প্রার্থী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আনন্দবাজার পত্রিকা বলছে, চার জেলাতে ভোট হলেও দ্বিতীয় দফার এই ভোটে উত্তাপ ছড়াচ্ছে নন্দীগ্রাম। রাজ্য রাজনীতি তো বটেই, জাতীয় রাজনীতিতেও বেশ কৌতূহলের সঞ্চার করেছে হেভিওয়েট আসনটি।

অনেক তারকা প্রার্থী আছেন দ্বিতীয় দফার ভোটে। কিন্তু নন্দীগ্রামের দুই প্রতিপক্ষ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তার সদ্য সাবেক সহযোদ্ধা শুভেন্দু অধিকারীর লড়াইয়ের দ্যুতিতে তারকারাও ফিকে হয়ে গেছেন।

এই দফায় ৩০ আসনে ভোট হলেও নন্দীগ্রাম কেন্দ্রই একা সেই ৩০ আসনের সমান হয়ে দাঁড়িয়েছে কেবল মমতা এবং শুভেন্দুর দ্বৈরথে। নন্দীগ্রামবাসীর আজকের রায়ই ঠিক করে দেবে ২ মে হাসিটা কার মুখে থাকে- তৃণমূল নেত্রী মমতা নাকি সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া শুভেন্দুর।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আসলে দুই প্রতিপক্ষের লড়াই নয়, এটা এখন ‘প্রেস্টিজ ফাইট’-এ পর্যবসিত হয়েছে যা এবারের নির্বাচনের লড়াইকে আরও বেশি গুরুত্বপূর্ণ করে তুলেছে।

এদিকে, কোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি যাতে তৈরি না হয়, তার জন্য গোটা নন্দীগ্রামকে নিশ্চিদ্র নিরাপত্তার বলয়ে মুড়ে ফেলা হয়েছে। জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা।

মমতা যেদিন নিজেকে নন্দীগ্রামের প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেছিলেন, ঠিক তার পরপরই বিজেপি শুভেন্দুকে এই আসনে প্রার্থী ঘোষণা করে। এতে বিধানসভার এই নির্বাচনের ২৯৪ আসনের সব মধ্যমণি হয়ে ওঠে এই আসন।

আজ বৃহস্পতিবার যে ৩০ আসনে নির্বাচন, ২০১৬ সালে তার মধ্যে মাত্র একটি আসনে জয় পেয়েছিল বিজেপি। দিলীপ ঘোষের হাত ধরে খড়গপুর সদর কেন্দ্রটি হাতে আসে তাদের। সেই তুলনায়, তৃণমূলের হাতে ছিল ২১টি আসন- দক্ষিণ ২৪ পরগনার গোসাবা, পাথরপ্রতিমা, কাকদ্বীপ, সাগর, পূর্ব মেদিনীপুরের পাঁশকুড়া পশ্চিম, ময়না, নন্দকুমার, মহিষাদল, নন্দীগ্রাম, চণ্ডীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুরের নারায়ণগড়, পিংলা, ডেবরা, দাসপুর, ঘাটাল, চন্দ্রকোনা, কেশপুর, বাঁকুড়ার তালড্যাংরা, ওন্দা, কোতুলপুর, ইন্দাস।

আগের নির্বাচনে পূর্ব মেদিনীপুরের তমলুক, পাঁশকুড়া পূর্ব, হলদিয়া, বাঁকুড়ার বরজোড়া এবং সোনামুখী- এই ৫টি আসন যায় সিপিএম-এর হাতে। কংগ্রেস জয় পায় পশ্চিম মেদিনীপুরের সবং, বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুর এবং বাঁকুড়া- এই ৩টি আসনে।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা।

অর্থসূচক/কেএসআর