মোদীবিরোধী মিছিলে সংঘর্ষ, ছাত্র অধিকারের ৭ জন রিমান্ডে

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে রাজধানীতে বাংলাদেশ ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদের মিছিল থেকে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনায় গ্রেফতার ছাত্র অধিকার পরিষদের সাতজনের বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

রোববার (২৮ মার্চ) ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম শুনানি শেষে এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক আল আমিন, শাকিল ও দলটির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ইব্রাহিমকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করা হয়।

এ সময় মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য আসামিদের ১০ দিন করে রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ জসিম প্রত্যেকের দুই দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

অপরদিকে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক রবিউল হাসান, সজল, ঢাকা কলেজের ছাত্র অধিকার পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নজরুল করিম সোহাগ ও ছাত্র অধিকার পরিষদের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের যুগ্ম সম্পাদক আলামিন, এদের প্রত্যেকের চার দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন ঢাকা মহানগর হাকিম তোফাজ্জল হোসেন।

এর আগে শুক্রবার (২৬ মার্চ) দিবাগত রাতে মতিঝিল থানায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করে।

জানা গেছে, মোদীর বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) দুপুর ১২টার দিকে মতিঝিল শাপলা চত্বরে ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদের ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিল করা হয়। এতে আরও বেশ কয়েকটি সংগঠনের কর্মীরা অংশ নেন।

পুলিশ মিছিলের গতিরোধ করতে চাইলে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে সংঘর্ষ বাধে। এ সময় পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ারগ্যাস ও সাউন্ড গ্রেনেড ছোড়ে। মিছিলকারীরাও পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে।

অপরদিকে ২৭ মার্চ জাতীয় প্রেস ক্লাবের ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরের নেতৃত্বে মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে ও হেফাজত ইসলামের হরতালের সমর্থনে সমাবেশ হয়।

অর্থসূচক/এমএস

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...