শূন্য থেকে স্বপ্ন পূরণে ‘ইয়ানিয়া’র যাত্রা

0
253

যখন কোনও কিছুর অস্তিত্ব থাকে না তখন শূন্য অবস্থা বিরাজ করে। কিন্তু কোন কিছু শুরু হয়ে গেলে ধীরে ধীরে সেটি বেড়ে ওঠে। তেমনি একটি স্বপ্ন নিয়ে যাত্রা শুরু করেছে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ‘ইয়ানিয়া’ ডট কম। যাত্রা শুরুর কয়েক মাসের মধ্যেই প্রতিষ্ঠানটি মানুষের আস্থা অর্জন করতে শুরু করেছে।

ইয়ানিয়ার উদ্যোক্তা এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফয়সাল রাব্বি বলেন, ই-কমার্স খাতে কাজের প্রচুর সুযোগ রয়েছে। শুরুতে আমরা অল্প কজন উদ্যোক্তা ছিলাম। করোনার মাঝে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য সুযোগ ছিল সাধারণ মানুষের কাছে সেবা পৌঁছে দেওয়ার। সেই কাজটি আমরা করে দেখাতে চাই। আমাদের প্রতিষ্ঠানে মানুষের চাহিদার কথা মাথায় রেখে পণ্য রাখা হয়েছে। যেসব গ্রাহক আমাদের প্ল্যাটফর্মের সঙ্গে যুক্ত হননি তারাও যুক্ত হয়ে পণ্য অনলাইনে অর্ডার করে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য গ্রাহকেরা ঘরে বসেই পেতে পারেন। তবে এ শপে পাওয়া যাবে না মাছ, মাংসের মতো কাঁচা বাজারের পণ্য। গ্রাহক তার অবস্থান থেকে অনলাইনে অর্ডার করবে। গ্রাহকেরা তাদের পণ্য অর্ডার করার পর সর্বনিম্ন এক ঘণ্টা থেকে ক্ষেত্র বিশেষে সর্বোচ্চ ৩৬ ঘণ্টার মধ্যে বাসায় সরবরাহ পাবেন সেসব পণ্যে। এ ক্ষেত্রে বাজার মূল্যের বিবেচনায় পণ্যের দাম ইয়ানিয়া নির্ধারণ করে দেবে যা কোনভাবেই বাজার মূল্য থেকে বেশি হবে না। আমরা তাদের কাছ থেকে পরামর্শ এবং মূল্যায়নও আশা করবো। গ্রাহকের চাহিদা ও সন্তুষ্টিকে সবসময় অগ্রাধিকার দেয় ‘ইয়ানিয়া’।

উল্লেখ্য, ২০২১ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে দেশি ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম হিসেবে যাত্রা শুরু করে ইয়ানিয়া (yienia.com)। নিজেদের কার্যক্রমের শুরু থেকেই পণ্যের পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের সেবাকে অনলাইন প্ল্যাটফর্মে আনার পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছে মার্কেটপ্লেসটি। এখান থেকে পাওয়া যায় ব্যাগ, জুতা, গয়না, পোশাক, ইলেকট্রিক্যাল এবং ইলেকট্রনিকস পণ্য, ইলেকট্রনিকস গ্যাজেটস, কসমেটিকস, খাদ্যপণ্যসহ নানা ধরনের পণ্য। এ ছাড়া বিভিন্ন ধরনের সেবা হিসেবে আর্থিক এবং ব্যাংকিং, বিউটি কেয়ার, ক্যাটারিং, ডে-কেয়ার, আইটি, স্বাস্থ্যসেবা, ভ্রমণ ও ভিসা পরামর্শ এবং টিউশন সেবার মতো শতাধিক সেবা আছে প্ল্যাটফর্মটিতে।

 

অর্থসূচক/এএইচআর