বাংলাদেশ ইমার্জিংয়ের লড়াকু সংগ্রহ

0
127

মাহমুদুল হাসান জয়ের সেঞ্চুরিতে আয়ারল্যান্ডে উলভসের বিপক্ষে লড়াকু সংগ্রহ পেয়েছে বাংলাদেশ ইমার্জিং দল। ১৩৫ বলে ১২৩ রান করেছেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। জয়ের সেঞ্চুরির পরও ৪৯.৪ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ ইমার্জিং দলের সংগ্রহ ২৬০ রান।

টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করতে পারেনি বাংলাদেশ ইমার্জিং দলের ব্যাটসম্যানরা। একাদশে ৭ পরিবর্তনের দিনে সাইফ হাসানের সঙ্গে ইনিংসের গোড়াপত্তন করেন আনিসুল হক ইমন। প্রথম ৪ ম্যাচে খেললেও এদিন তানজিদ হাসান তামিমকে বিশ্রাম দিয়েছে টিম ম্যানেজমেন্ট।

দলীয় মাত্র ১৫ রানে সাইফকে সাজঘরে ফেরান মার্ক অ্যাডায়ার। ১৪ বলে মাত্র ৩ রান করেছেন দলটির অধিনায়ক। এরপর জয়কে নিয়ে শুরুর বিপর্যয় সামাল দেন আরেক ওপেনার আনিসুল। এই দুজনের জুটি থেকে আসে ৪৯ রান। ৩১ বলে ৪১ রান করে আনিসুল ফিরলে ভাঙে তাঁদের এই জুটি। ইনিংসটি খেলতে ৮টি চার মেরেছেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান।

আনিসুলের বিদায়ের পর তৌহিদ হৃদয়কে নিয়ে ৪৫ রানের জুটি গড়েন জয়। ৩৯ বলে ২০ রান করে হৃদয় ফিরলে ভাঙে তাঁদের এই জুটি। এদিন থিতু হতে পারেননি শাহাদাত হোসেন দিপু ও শামীম হোসেন পাটোয়ারি। শাহাদাত ফিরেছেন ১৩ রান করে আর শামীম বিদায় নিয়েছেন ১১ রানে।

শামীমের বিদায়ের পর মাহিদুল ইসলাম অঙ্কনকে নিয়ে ৭১ রানের জুটি গড়েন জয়। অঙ্কন ৩৩ রানে ফিরলে ভাঙে এই জুটি। এর মাঝে ১২৪ বলে এই সিরিজে নিজের প্রথম সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন জয়। শেষ পর্যন্ত ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান থামেন ১৩৫ বলে ১২৩ রান করে।

এই ইনিংসটি খেলতে ৩টি ছক্কা ও ৯টি চার মেরেছেন। জয় সাজঘরে ফেরার পর আর কোনো ব্যাটসম্যান সেভাবে দাঁড়াতে পারেননি। ফলে শেষ পর্যন্ত সবকটি উইকেট হারিয়ে ২৬০ রানে অল আউট হয় বাংলাদেশ ইমার্জিং দল। তিনটি উইকেট নিয়েছেন অ্যাডায়ার আর দুটি উইকেট নিয়েছেন প্রিটোরিয়াস।

অর্থসূচক/এএইচআর