ব্যাটিং পজিশনে আমি বিশ্ব সেরা: গেইল

0
157

বয়সের কোঁটা ৪১ ছুঁয়েছে, ব্যাট হাতে এখনও দানবীয় ক্রিস গেইল। সজোরে ব্যাট চালান, চার-ছক্কার পসরা সাজিয়ে বসেন। বিশ্বজুড়ে ফ্র্যাঞ্জাইজি ক্রিকেট টুর্নামেন্টগুলোতে তাকে দলে পেতে উন্মুখ হয়ে থাকে ফ্র্যাঞ্জাইজিগুলো। সম্প্রতি ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলেও জায়গা করে নিয়েছেন তিনি ।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে প্রতিনিধিত্ব করতে দেখা যাবে গেইলকে। অথচ নিজের প্রিয় ব্যাটিং পজিশন ওপেনিংয়ে ব্যাট করতে পারবেন না তিনি। কেননা উইন্ডিজ দলে গেইল ছাড়াও এভিন লুইস, লেন্ডল সিমন্স এবং আন্দ্রে ফ্লেচারের মতো তিনজন বিশেষজ্ঞ উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান আছেন।

ক্যারিয়ারের পড়ন্ত বেলায় এসেও যে কোন ব্যাটিং পজিশনে এখনও নিজেকে টি-টোয়েন্টির সেরা ব্যাটসম্যান মানছেন গেইল। অধিনায়ক কাইরন পোলার্ড এবং কোচ ফিল সিমন্স যেখানে চাইবেন, সেখানে খেলতে আপত্তি নেই তার। এ প্রসঙ্গে গেইল বলেন, ‘মনে হচ্ছে আমি এখন নাম্বার থ্রি স্পেশালিস্ট। এটা কোনো সমস্যা না। আমি স্পিন ভালো খেলতে পারি। ওপেনার হিসেবে ফাস্ট বোলারদের তো পারিই। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটে আমাকে যেভাবে তারা চাইবেন, আমি খেলতে রাজি। আমি যা দায়িত্ব পাব, পালন করব। যদি ওপেনিং হয়, আমি প্রস্তুত। তিন নম্বর বা পাঁচ নম্বরেও আমি খুব স্বাচ্ছন্দ্য। আমি এখনও বিশ্বের সেরা পাঁচ নম্বর বা বিশ্বের সেরা তিন নম্বর ব্যাটসম্যান হতে পারি।’

দেশের হয়ে টি-টোয়েন্টিতে ৫৪ ইনিংসের প্রতিবারই ইনিংস শুরু করেছেন ইউনিভার্স বস। কিন্তু ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে তার ভূমিকা কিছুটা বদলে গেছে। গত আইপিএলে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে ৯ ইনিংসেই তিন নম্বরে নেমেছিলেন। ব্যাট হাত ৪৩.৮৮ গড়ে এবং ১৪৪.১৬ স্ট্রাইকরেটে গেইল করেছিলেন ৩৯৫ রান।

 

অর্থসূচক/এএইচআর