ভারতের কারণে শঙ্কায় এশিয়া কাপ

0
103

ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) ভবিষ্যৎ সূচি (এফটিপি) অনুযায়ী চলতি বছরের জুনে শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত হবে এশিয়া কাপ। তবে এই সময়ে ক্রিকেটের অন্যতম পরাশক্তি ভারতকে ব্যস্ত থাকতে দেখা যেতে পারে ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে।

এক্ষেত্রে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এই টুর্নামেন্টের ফাইনালে জায়গা নিশ্চিত করতে হবে বিরাট কোহলিদের দলকে। আর ভারত টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনাল খেললে পিছিয়ে যাবে এশিয়া কাপ- এমনটাই আশঙ্কা করছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) চেয়ারম্যান এহসান মনি।

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম আসরের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে এই বছরের জুনে, লর্ডসে। এখন পর্যন্ত একমাত্র দল হিসেবে ফাইনালে উর্ত্তীর্ণ হয়েছে নিউজিল্যান্ড। ফাইনালে কে হবে তাঁদের প্রতিপক্ষ তা এখনো নিশ্চিত হয়নি। এই লড়াইয়ে টিকে থাকা দলগুলো হচ্ছে অস্ট্রেলিয়া এবং ভারত। তবে ঘরের মাঠে দুর্দান্ত খেলতে থাকা কোহলিদের জন্য বর্তমানে ফাইনালে জায়গা করে নেয়াটা তুলনামূলক সহজ অস্ট্রেলিয়ার তুলনায়। ইংলিশদের বিপক্ষে সিরিজের চতুর্থ এবং শেষ টেস্টে ভারত জয় পেলে কপাল পুড়বে অস্ট্রেলিয়ার। সেক্ষেত্রে লর্ডসের ফাইনালে কেন উইলিয়ামসনদের বিপক্ষে প্রথম শিরোপার লড়াইয়ে নামবে ভারত। আর এই ফাইনাল খেললে এবারের এশিয়া কাপ পিছিয়ে যাবে।

কারণ এশিয়ার সেরার লড়াইয়ে ভারতের অংশগ্রহণ না নেয়া মানে অন্যান্য ক্রিকেট বোর্ড এবং সম্প্রচারকারীদের জন্য বড় ধরনের ধাক্কা। ভারতকে নিয়ে নির্ধারিত সময়ে এশিয়া কাপ মাঠে গড়াতে হলে সামনে রয়েছে দুই পথ। প্রথমত, ইংলিশদের বিপক্ষে সিরিজের শেষ টেস্টে কোহলিদের পরাজয় এবং টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে অজিদের সুযোগ পাওয়া। যদিও সেই পথ অনেকটাই কঠিন। কারণ শেষ ম্যাচে ইংলিশদের জয় পেতে হলে করে দেখাতে হবে দুর্দান্ত কিছু। সেক্ষেত্রে দ্বিতীয় পথে হাঁটতে হবে আয়োজকদের। এশিয়া কাপ পিছিয়ে দিয়ে নিশ্চিত করতে হবে ভারতের অংশগ্রহণ। আর কোহলিদের উপস্থিতি নিশ্চিত করতে ইতিমধ্যে এশিয়া কাপ পেছানোর ব্যাপারে রাজি হয়েছে আয়োজকরা।

 

অর্থসূচক/এএইচআর