কমেছে পেঁয়াজের দাম, বেড়েছে ডিমের

0
498

সপ্তাহের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম আরও কমেছে। একইসঙ্গে স্বস্তি ফিরছে সবজির দামে। খুচরা বাজারে এখন ৩৫ টাকা কেজিতেই পেয়াজ পাওয়া যাচ্ছে। তবে দাম বেড়েছে ডিমের। আর অপরিবর্তিত রয়েছে মাংসের দাম।

আজ (২৯ জানুয়ারি) রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, বেগুনের কেজি ৩০ থেকে ৩৫ টাকা, শিম ২৫ থেকে ৩০ টাকা, টমেটো ৩০ থেকে ৪০ টাকা, কাঁচা মরিচ ৬০ থেকে ৭০, ঢেঁড়স ৮০ টাকা, ঝিঙ্গা-ধন্দল-চিচিঙ্গার ৫০ থেকে ৬০ টাকা, মুলা ১০ থেকে ১৫ টাকা, পেঁপে ২৫ টাকা, প্রতি পিস লাউ ৩০ থেকে ৩৫ টাকা, ফুলকপি ২০ থেকে ২৫ টাকা, বাঁধাকপি ১৫ থেকে ২০ টাকা, শালগম ১০ থেকে ১৫ টাকা, কচুরমুখী ৬০ টাকা, করলা ৫০ টাকা, গাজর ৩০ থেকে ৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

গত সপ্তাহ থেকে এ সপ্তাহে পেঁয়াজের দাম আরও কমেছে। এ সপ্তাহে প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকা। গত সপ্তাহে ছিল ৩৫ টাকা। গত সপ্তাহে বিদেশি পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৩০ টাকা কেজি। এ সপ্তাহে বিক্রি হচ্ছে ২৫ টাকা কেজি। আর আলু বিক্রি হচ্ছে ১৫ টাকা। এসব বাজারে ইন্ডিয়ান মসুর ডাল বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকা কেজি, দেশি মসুর ডাল ১১০ টাকা কেজিতে। আর রসুন ১২০ টাকা থেকে ১৩০ টাকা, আদা ৭০ থেকে ৮০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

খুচরা বাজারে বেড়েছে ডিমের দাম। লাল ডিম ডজন প্রতি বিক্রি হচ্ছে ৯০ টাকা, হাঁসের ডিম ১৫৫ থেকে ১৬০ টাকা, দেশি মুরগির ডিম বিক্রি হচ্ছে ১৯০ থেকে ২০০ টাকায়। আর সোনালি মুরগি (কক) ২১০ থেকে ২২০ টাকায় ও ব্রয়লার প্রতি কেজি ১৩৫ থেকে ১৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে এসব বাজারে অপরিবর্তিত আছে মাংসের দাম। বাজারে প্রতি কেজি খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে ৭০০ থেকে ৭৫০ টাকা, বকরি ৭০০ থেকে ৭৫০ টাকা, গরু ৫৫০ টাকা ও মহিষের মাংস ৫৫০ থেকে ৫৮০ টাকায়।

এছাড়া আকার ভেদে প্রতি কেজি রুই মাছ বিক্রি হচ্ছে ২৫০ থেকে ৩৫০ টাকা, মাগুর ৬০০ টাকা, শিং (আকারভেদে) ৩০০ থেকে ৪৫০ টাকা, পাঙাস ১২০ থেকে ১৫০ টাকা, ইলিশ ৮৫০ থেকে এক হাজার টাকা, চিংড়ি ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা, বোয়াল ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা, পাবদা ১৫০ থেকে ২৫০ টাকা, টেংরা ১৮০ থেকে ২০০ টাকা, তেলাপিয়া ১৪০ টাকা, দেশি কৈ ১৫০ থেকে ৭০০ টাকা, কাচকি ২৫০ থেকে ৪৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

 

অর্থসূচক/এনএইচ/এএইচআর