আম্পায়ারিং ক্যারিয়ারকে বিদায় জানালেন অক্সেনফোর্ড

0
270

সব ফরম্যাটের ক্রিকেট থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ব্রুস অক্সোনফোর্ড। ১৫ বছরের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের ইতি টেনেছেন ৬০ বছর বয়সী এই অস্ট্রেলিয়ান আম্পায়ার। ব্রিসবেনে অস্ট্রেলিয়া বনাম ভারতের মধ্যে হওয়া টেস্টটিই ছিলো তার ক্যারিয়ারের শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ। অক্সেনফোর্ড মোট ৬২টি আন্তর্জাতিক টেস্ট ম্যাচ পরিচালনা করেছেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে না বললেও অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া ক্রিকেটে আম্পায়ারিং করে যাবেন তিনি। ২০০৭-০৮ মৌসুমে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি)আন্তর্জাতিক প্যানেলে যুক্ত হন এই আম্পায়ার। এরপর ২০১২ সালে এলিট প্যানেলে পদন্নতি পান তিনি।

অবসর প্রসঙ্গে অক্সেনফোর্ড বলেন, ‘আম্পায়ার হিসেবে খুব সুন্দর সময় কাটিয়েছি। মাঠের সুন্দর সম্পর্কের কথা গুলো মনে পড়বে। সবথেকে বেশী মনে পড়বে অসাধারণ মানুষগুলোর কথা যারা সারা বিশ্ব জুড়ে এই খেলার বিস্তারের পেছনে কাজ করছেন এবং সমর্থন করে যাচ্ছেন।’

ব্রুস অক্সেনফোর্ডসহ মোট ৬ জন অস্ট্রেলিয়ান ৫০টি বা তার বেশী আন্তর্জাতিক টেস্ট পরিচালনার কীর্তি গড়েছেন। বাকিরা হলেন- ড্যারেল হার্পার, ড্যারেল হেয়ার, সাইমন টাফেল, রড টাকার এবং স্টিভ ডেভিস। বিশ্বজুড়ে মাত্র ১৬ জন আম্পায়ারের এই রেকর্ড রয়েছে।

নারীদের দুইটি বৈশ্বিক টুর্নামেন্টে দায়িত্ব পালন করেছেন অক্সেনফোর্ড। পাশাপাশি তিনটি করে পুরুষদের ৫০ ওভার ও ২০ ওভারের বিশ্বকাপে দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। অক্সেনফোর্ডই প্রথম আম্পায়ার ছিলেন যিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সুরক্ষার জন্য ‘আর্ম শিল্ড’ ব্যাবহার করেন।

তিনি আরো বলেন, ‘আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের দিকে তাকিয়ে আমি গর্ববোধ করি। ভাবতে অবাক লাগে প্রায় ২০০টির কাছকাছি আন্তর্জাতিক ম্যাচ পরিচালনা করেছি। দীর্ঘ এই ক্যারিয়ারের কথা আমি শুরুতে কল্পনাও করতে পারিনি। সবার আগে আমি আমার স্ত্রী জো, ছেলে জেমস এবং মেয়ে ক্রিস্টিনকে ধন্যবাদ দিতে চাই। তাদের ভালোবাসা ও সমর্থন না পেলে আমার এই দীর্ঘ ক্যারিয়ার সম্ভব হতো না।

 

অর্থসূচক/এএইচআর