ফের মমতার দলে ছন্দপতন

0
196

ফের ছন্দপতন। এবার উইকেট পড়ল পশ্চিমবঙ্গের বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের। আজ (২২ জানুয়ারি) পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি দিয়ে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিলেন তিনি।

ভারতীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, বেশ কিছু দিন ধরেই পশ্চিমবঙ্গের জেলা নেতৃত্বের বিরুদ্ধে সরব রাজীব। তিনি হাওড়ার নেতা। হাওড়ায় তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা অরূপ বসুর সঙ্গে দীর্ঘ দিন ধরেই রাজীবের বিতর্ক চলছে। অরূপের নামে একাধিকবার অনিয়মের অভিযোগ তুলেছেন রাজীব। কিন্তু দল কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। এই পরিস্থিতিতে গত সপ্তাহে দিন ঘোষণা করে রাজীব একটি ফেসবুক লাইভ করেন। সেখানেও দলের কোনো কোনো নেতার বিরুদ্ধে নিজের ক্ষোভ উগরে দেন। তবে দল ছাড়ার কথা তখনো বলেননি তিনি।

জানা গেছে, রাজীব যাতে দল না ছাড়েন, তার জন্য কোনো কোনো নেতা তাঁর সঙ্গে আলোচনা চালাচ্ছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাঁকে আটকানো গেল না। বনমন্ত্রীর পদ থেকে শুক্রবার পদত্যাগ পত্র জমা দিলেন রাজীব। এবার দল ছাড়া কেবলই সময়ের অপেক্ষা বলে মনে করছেন রাজীব ঘনিষ্ঠ শিবির। যদিও ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের ত্রাণ নিয়েও দলটির কোনো কোনো নেতার দিকে আঙুল তুলেছিলেন রাজীব। ত্রাণ নিয়ে দুর্নীতির বিষয়টি সামনে এনেছিলেন।

কিছুদিন আগেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা শুভেন্দু অধিকারী। রাজীবকে নিয়েও সেই সময় থেকে জল্পনা চলছিল। তবে বনমন্ত্রী হিসেবে রাজীব ভালো কাজ করেছেন বলে রাজ্যের অনেকেই মনে করেন। রাজীবকে অন্য বহু রাজনীতিবিদের চেয়ে সৎ বলে মনে করেন পশ্চিমবঙ্গের অধিকাংশ মানুষ। সেই রাজীব মন্ত্রিত্ব পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পরে তার পরবর্তী পদক্ষেপ নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে। তবে কি তিনিও বিজেপিতে যোগ দেবেন।

তবে ভারতের রাজনৈতিক মহলে দাবি, শুভেন্দুর পরে এবার তিনিও বিজেপিতে যোগ দেবেন। আলোচনা শেষপর্বে।

রাজীবের মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা দেওয়া নিয়ে মতামত দিতে চাননি তৃণমূল নেতৃত্ব। বিজেপির রাজ্যস্তরের এক গুরুত্বপূর্ণ নেতা গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, রাজীবের সঙ্গে বিজেপি নেতৃত্বের চূড়ান্ত আলোচনা হওয়ার পরেই ইস্তফা দিয়েছেন তিনি। তবে তিনি কবে গেরুয়া শিবিরে যোগ দেবেন, তা এখনো স্পষ্ট নয়।

অর্থসূচক/এএইচআর