আবারও অভিশংসিত ট্রাম্প

0
80

মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদ প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে তাণ্ডবে উস্কানি দেওয়ার অভিযোগে ইমপিচ করেছে। আমেরিকার ইতিহাসে ট্রাম্প প্রথম কোনো প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রতিনিধি পরিষদে দ্বিতীয়বারের মতো ইমপিচমেন্টের শিকার হলেন।

বুধবার রাতে প্রতিনিধি পরিষদে ট্রাম্পকে ইমপিচ করার ভোটাভুটিতে সব ডেমোক্র্যাট সদস্যের পাশাপাশি ক্ষমতাসীন রিপাবলিকান দলের ‌১০ আইনপ্রণেতা নজিরবিহীনভাবে ট্রাম্পের বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন। এর ফলে ৪৩৫ আসনবিশিষ্ট প্রতিনিধি পরিষদে ইমপিচমেন্ট প্রস্তাব ২৩২-১৯৭ ভোটে জয়ী হয়েছে।

কংগ্রেসের নিম্নকক্ষে ইমপিচ হওয়ার পর এখন ট্রাম্পকে উচ্চকক্ষ সিনেটে বিচারের মুখোমুখি হতে হবে। তবে বাকি আর মাত্র এক সপ্তাহ সময়ের মধ্যে রিপাবলিকান নিয়ন্ত্রিত সিনেট ইমপিচমেন্টের ওপর ভোটাভুটির আয়োজন করবে বলে মনে হয় না। কাজেই এই ইমপিচমেন্টের কারণে ট্রাম্পকে নির্ধারিত সময়ের আগে ক্ষমতা ত্যাগ করতে বাধ্য করা যাবে না।

মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদ

কিন্তু প্রেসিডেন্ট বাইডেন ক্ষমতা গ্রহণ করার পর সিনেট বিষয়টি নিয়ে ভোটাভুটির আয়োজন করবে এবং সেখানেও একই পরিস্থিতির শিকার হলে ট্রাম্প আর কোনোদিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করতে পারবেন না। ডোনাল্ড ট্রাম্প একাধিকবার ২০২৪ সালে অনুষ্ঠেয় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

গত বুধবার বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সমর্থকরা দেশটির কংগ্রেস ভবন ক্যাপিটল হিলে হামলা চালায়। এ সময় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে তাদের সংঘর্ষে একজন পুলিশ কর্মকর্তা ও এক নারীসহ পাঁচজন নিহত হয়। ট্রাম্প ওই হামলার পর তাণ্ডবকারীদের সমর্থন করে বক্তব্য রাখেন এবং এখন পর্যন্ত এ ব্যাপারে অনুতাপ প্রকাশ করেননি। তাণ্ডবকারীরা কংগ্রেসে জো বাইডেনকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে ঘোষণা করার যৌথ অধিবেশন বানচাল করতে ট্রাম্পের আহ্বানে সাড়া দিয়ে ক্যাপিটল হিলের সামনে জড়ো হয়েছিল। পরে দৃশ্যত তাৎক্ষণিক ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ ঘটাতে তারা সংসদ ভবনের ভেতর ঢুকে পড়ে।

আগামী ২০ জানুয়ারি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের দায়িত্ব পালনের মেয়াদ শেষ হতে যাচ্ছে। গত ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্প ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের কাছে বড় ব্যবধানে হেরে যান।

অর্থসূচক/এএইচআর