ক্যাপিটল ভবনে ট্রাম্প সমর্থকের গুলি-ভাঙচুর, কারফিউ জারি

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল ভবনে কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশনে নির্বাচনে জো বাইডেনের জয় স্বীকৃতির প্রক্রিয়ার সময় তাণ্ডব চালিয়েছেন ট্রাম্প সমর্থকরা। এসময় গোলাগুলির ঘটনাও ঘটেছে। এতে একজন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। ওয়াশিংটনে জারি করা হয়েছে কারফিউ।

ওয়াশিংটন পোস্ট জানিয়েছে, বুধবার যখন ওয়াশিংটন ডিসির ক্যাপিটল ভবনে (পার্লামেন্ট) ইলেকটোরাল কলেজের দেয়া ভোটগুলো গণনা হচ্ছিল এবং তা চূড়ান্তভাবে প্রত্যয়ন করা হচ্ছিল, ঠিক তখনই ট্রাম্প সমর্থকরা নিরাপত্তা ব্যারিকেড ভেঙে ক্যাপিটলের ভেতরে প্রবেশ করেন। এসময় গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এতে একজন আহত হন। আমেরিকার ইতিহাসে এমনটি ঘটেনি।

এ ঘটনায় স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টা থেকে ওয়াশিংটন ডিসির মেয়র কারফিউ ঘোষণা করেছেন।

এর আগে কংগ্রেস অধিবেশনের বিরোধিতা করে ওয়াশিংটনে জড়ো হন কয়েক হাজার ট্রাম্প সমর্থক, যাদের মধ্যে উগ্রপন্থী বিভিন্ন গ্রুপের সদস্যরাও রয়েছেন। সেই সমাবেশে বক্তব্যে নভেম্বরের নির্বাচনে পরাজয় মেনে না নেয়ার ঘোষণা দেন ট্রাম্প।

রয়টার্স জানিয়েছে, এই সমাবেশের অল্প একটু দূরে গিয়ে কয়েকশ ট্রাম্প সমর্থক ক্যাপিটল ভবনে নিরাপত্তা ব্যারিকেড ভেঙে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ান। এক পর্যায়ে কংগ্রেসের অধিবেশন চলার মধ্যেই পুলিশের বাধা ভেঙে ক্যাপিটল ভবনে ঢুকে পড়েন তারা। তাদের ছত্রভঙ্গ করতে কাঁদুনে গ্যাস ও পেপার স্প্রে ব্যবহার করে পুলিশ।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, অধিবেশন চলাকালে হঠাৎ করেই ট্রাম্প সমর্থকরা সেখানে তাণ্ডব শুরু করে। ভাঙচুরের পাশাপাশি সেখানে গোলাগুলিও হয়েছে। অন্তত একজন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। ওয়াশিংটনে জারি করা হয়েছে কারফিউ।

সংঘর্ষের মধ্যে প্রতিনিধি পরিষদের (হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভস) সদস্যদের পাহারা দিয়ে অধিবেশন কক্ষ থেকে বের করে পুলিশ। এই পরিস্থিতিতে সিনেট অধিবেশনও মুলতবি করা হয়। যৌথ অধিবেশনে সভাপতিত্ব করা ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সকেও পাহারা দিয়ে অধিবেশন কক্ষ থেকে বের করে পুলিশ।

ঘটনার সময় পুলিশ অধিবেশন কক্ষে উপস্থিত আইনপ্রণেতাদের তাদের আসনের নিচ থেকে গ্যাস মাস্ক বের করে পরার পরামর্শ দেয়। বিক্ষুব্ধদের মধ্য থেকে অধিবেশন কক্ষে প্রবেশের চেষ্টা করা হলে সামনের দিকে অবস্থানরত পুলিশ কর্মকর্তারা বন্দুক তাক করেন।

অর্থসূচক/এমএস

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...