জিম্বাবুয়েতে সব ধরনের ক্রিকেট স্থগিত

0
141

করোনা ভাইরাসের কারণে নতুন করে ধাক্কা খেয়েছে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট। সম্প্রতি করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় দেশটির সরকারের পক্ষ থেকে আবারও লকডাউনের ঘোষণা এসেছে। আর এতেই স্থগিত করা হয়েছে জিম্বাবুয়ের সকল ধরনের ক্রিকেটীয় কার্যক্রম।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরানোর প্রস্তুতি হিসেবে প্রথম শ্রেণির টুর্নামেন্ট লোগান কাপ শুরু হয়েছিল জিম্বাবুয়েতে। টুর্নামেন্টের দুই রাউন্ড শেষে বড়দিনের ছুটিতে গিয়েছিলেন খেলোয়াড়েরা। লোগান কাপের ৩য় রাউন্ড শুরুর আগে ৪ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি কাপ। কিন্তু সরকারের দেয়া লকডাউনের খড়গ পড়লো টুর্নামেন্ট দুটোর উপর।

আসরগুলো স্থগিত হলেও দ্রুততম সময়ে মাঠে ক্রিকেট ফেরানোর আশা রাখছে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট (জেডসি)। এক বিবৃতিতে তাঁরা জানিয়েছে, ‘এটি আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জিং একটা সময়। কিন্তু জেডসির লক্ষ্য টি-টোয়েন্টি কাপসহ সব ক্ষতিগ্রস্থ টুর্নামেন্টের সময়সূচি দ্রুতই পুনঃনির্ধারন করা হবে। পরিস্থিতি নিরাপদ হওয়া মাত্র তাদের খেলতে হবে।’

গত নভেম্বরে পাকিস্তান সফরে তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি ম্যাচের সিরিজ খেলেছে জিম্বাবুয়ে। এরপর আর মাঠে নামতে না পারলেও নতুন বছরে অবশ্য দারুণ ব্যস্ততা অপেক্ষা করছিল তাদের জন্য। ঘরের মাঠে আফগানিস্তান, বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের বিপক্ষে পূর্নাঙ্গ সিরিজ রয়েছে তাদের সূচিতে। এ ছাড়াও এক টেস্ট, তিনটি ওয়ানডে ও দুইটি টি-টোয়েন্টি খেলতে আয়ারল্যান্ড সফর করবে তারা। যদিও বছর শেষ করার কথা ছিল ঘরের মাঠে আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেলে। তবে পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে সফরকারী দল হিসেবে আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেলে বছর শেষ হতে পারে জিম্বাবুয়ে।

ইতোমধ্যেই জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়ার (বিসিসিআই) কাছে নতুন বছরে তাদের দেশে সফর করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। একই সঙ্গে বছরে একটি ফাঁকা সময়ে নেদারল্যান্ডসে খেলতে যাওয়ার কথা রয়েছে তাঁদের। এই দুইটি সূচি যদি চূড়ান্ত হয় তবে দারুণ ব্যস্ত একটি বছর অপেক্ষা করছে জিম্বাবুয়ের জন্য। কিন্তু বছরের শুরুর এই লকডাউনে জিম্বাবুয়ের পরিকল্পনা কতটুকু বাস্তবায়ন করতে পারবে তা সময়ই বলে দেবে।

 

 

অর্থসূচক/এএইচআর