ড্রোনের যন্ত্রণায় অস্থির তারকারা

0
71
anne-hathaway
আন্না হ্যাথওয়ে (ফাইল ছবি)

ড্রোনের যন্ত্রণায় অস্থির হয়ে পড়েছেন হলিউড তারকারা। পাপারাজ্জিরা তাদের কাছে ঘেঁষতে না পারে লেলিয়ে দিয়েছে এ ড্রোন।

এক খবরে ডেইলি মেইল জানিয়েছে, মাইলি সাইরাসের বাসভবন থেকে সেলেনা গোমেজের শ্যুটিং স্পট সবখানেই ঢুঁ মারছে এ ড্রোন।

শুধু তাই নয়, জনপ্রিয় মডেল কিম কর্দিশিয়ান তার মেয়েকে সাঁতার শেখানোর সময়ও ড্রোনকে আশেপাশে ঘোরাঘুরি করতে দেখেছেন। এ তালিকায় আরও আছেন টিনা টার্নার এবং আন্না হ্যাথওয়ে।

ব্রিটেনের তারকারাও মুক্তি পাচ্ছেন না এ যান্ত্রিক গোয়েন্দার হাত থেকে।

জানা গেছে, ড্রোন ব্যবহারে খরচ কম হওয়ার কারণে পাপারাজ্জিরা এ প্রযুক্তির দ্বারস্থ হয়েছে। তাছাড়া এর সাথে সংযুক্ত ক্যামেরা দিয়ে ইচ্ছেমত ছবি তোলা এবং ভিডিও করা যায়।

খোদ ব্রিটেনেই ইতোমধ্যে কয়েক হাজার ড্রোন বিক্রি হয়েছে। যদিও দেশটিতে পাবলিক প্লেস ও বসতবাড়ির নিকটে ড্রোন চালনায় নিষেধাজ্ঞা আছে।

পাপারাজ্জিদের যন্ত্রণা এতটাই তীব্র যে মার্কিন সংগীত তারকা জাস্টিন বিবার দাবি জানিয়েছেন এর বিরুদ্ধে আইন করার।

পাপারাজ্জির পাল্লায় পড়ে গাড়ি দুর্ঘটনায় পড়ার পর ব্রিটিশ রাজবধূ প্রিন্সেস ডায়ানার মৃত্যুর প্রসঙ্গ টেনে এক টুইটার বার্তায় তিনি বলেন, সম্প্রতি আমি যে অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হয়েছি তার বিরুদ্ধে অবশ্যই আইন থাকা প্রয়োজন। প্রিন্সেস ডায়ানার মৃত্যু থেকে আমাদের সবার শিক্ষা নেওয়া উচিত। পাপারাজ্জিদের সঙ্গে আমার ব্যক্তিগত কোনো বিরোধ নেই। কিন্তু তারা যখন অসংযত আচরণ করেন, তখন আমাদের জীবন হুমকির মুখে পড়ে।

প্রসঙ্গত, পাপারাজ্জিদের কাছ থেকে বাঁচতে দ্রুত গতিতে গাড়ি চালানোর সময় ১৯৯৭ সালের ৩১ আগস্ট ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে এক সড়ক দুর্ঘটনায় মারাত্মকভাবে আহত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন ডায়ানা।