খেলার শুরুতেই লাল কার্ড!

0
61
Nasco
এমএলএস লিগে ম্যাচ শুরুর মাত্র ৩৪ সেকেন্ডেই লাল কার্ড দেখেন কলোরাডোর গোলরক্ষক ন্যাসকো।

মেজর লিগ সকারের (এমএলএস) এই ম্যাচ শুরুর প্রথম মিনিটেই লাল কার্ড দেখলেন এক ফুটবলার। তবে তিনি রক্ষণভাগের কোনো খেলোয়াড় নন। লিগের কলোরাডো র্যা পিডস দলের গোলরক্ষক তিনি। যুক্তরাষ্ট্রের ওই খেলোয়াড়ের নাম জো ন্যাসকো। এমএলএস-এর ইতিহাসে দ্রুততম লাল কার্ড এটি।

Nasco
এমএলএস লিগে ম্যাচ শুরুর মাত্র ৩৪ সেকেন্ডেই লাল কার্ড দেখেন কলোরাডোর গোলরক্ষক ন্যাসকো।

ম্যাচের মাত্র ৩৪ সেকেন্ডে লিগের এলএ গ্যালাক্সির এক খেলোয়াড়কে বাজেভাবে ফাউল করায় ন্যাসকোকে সরাসরি লাল কার্ড দেখান রেফারি।

কলোরাডো র্যা পিডসের গোলবারের বাম দিক থেকে একটি শট করেন এলএ গ্যালাক্সির একজন স্ট্রাইকার। এটি ঠেকিয়ে দিলেও বিপদমুক্ত করতে পারেননি ন্যাসকো। তার হাত থেকে ফসকে যাওয়া বলটি গোলের জন্য শট নিতে গিয়েছিলেন গ্যালাক্সির অপর একজন ফুটবলার।

সে সময় দলকে বিপদমুক্ত করতে প্রতিপক্ষের প্রতিপক্ষে খেলোয়াড়কে বাধা দেন ন্যাসকো। তবে বাধা দেওয়ার কৌশলটা নিয়মের নিয়মের বাইরে চলে যায়। ওই খেলোয়াড়ের পা টেনে ধরেন গোলরক্ষক ন্যাসকো।

নিয়মবহির্ভূত এই বাধা রেফারির চোখ এড়িয়ে যায়নি। আর তাতেই ঘটল বিপত্তি। প্রথম মিনিটেই লাল কার্ড দেখেন ন্যাসকো। আর ১০ জন খেলোয়াড়কে নিয়ে খেলতে হয় কলোরাডো র্যা পিডসকে। গোলরক্ষকের অভাব বা ১০ জনের দল যে কারণেই হোক না কেন- ম্যাচটি ৬-০ গোলে হারল কলোরাডো।

এমই/