কাল সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজের লেনদেন

0
73
shurwid
সুহৃদ ইন্ড্রাস্ট্রিজের লোগো
shurwid
সুহৃদ ইন্ড্রাস্ট্রিজের লোগো

সম্প্রতি প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) আসা সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের  লেনদেন  আগামী কাল শুরু হবে ।

ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে একইসঙ্গে লেনদেন শুরু হবে। কোম্পানির শেয়ারের মার্কেট লট হবে ৫০০টিতে।

লেনদেন শুরু হওয়ার আগে সকাল ১০ টায় ডিএসই ও কোম্পানির সঙ্গে স্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হবে।

স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে ডিএসই’র ব্যস্থাপনা পরিচালক ড. স্বপন কুমার বালা, চিপ রেগুলেটারি অফিসার জিয়াউল হাছান খান, লিস্টিং বিভাগের ম্যানেজার শফিকুল ইসলাম ভূইয়া ও উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

কোম্পানির পক্ষ থেকে থাকবেন চেয়ারম্যান আনিছ আহমেদ, ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাহেদুল হক, পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার মাহমুদুল হাছান, আহমেদ কবির মজুমদার, আর ওয়াই শমসের, ইউরোদেশ কনজুমার প্রডাক্টের পরিচালক তুহিন রেজা, কোম্পানির প্রধান অর্থ কর্মকর্তা আনোয়ার হোসাইন (এসিএমএ), কোম্পানি সচিব এসকে সাহা,এএফসি ক্যাপিটালের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মাহবুব এইচ মজুমদার, আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্টের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মশিউর রহমান প্রমুখ।

নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে স্বাক্ষর করবেন ডিএসই’র লিস্টিং বিভাগের ম্যানেজার শফিকুল ইসলাম ভূইয়া ও কোম্পানির প্রধান অর্থ কর্মকর্তা আনোয়ার হোসাইন (এসিএমএ)।

ডিএসইতে সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজের ট্রেডিং কোড হবে “SHURWID”। কোম্পানি কোড নির্ধারণ করা হয়েছে ১৩২৩৪; সিএসইতে কোম্পানির স্ক্রীপ কোড হবে “SHURWID”’; স্ক্রীপ আইডি নির্ধারণ করা হয়েছে ১৬০২৮।

উল্লখ্যে কোম্পানিটি গত ১৪ আগস্ট ডিএসইতে এবং ১৮ আগস্ট সিএসইতে তালিকাভুক্ত হয়।

আইপিও সম্পন্ন করা সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের তৃতীয় প্রান্তিকে ইপিএস বা শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ১৬ পয়সা। কোম্পানির আইপিও পরবর্তী ৪ কোটি ৫৩ লাখ ৫০ হাজার শেয়ার হিসাবে এ ইপিএস হয়েছে।

কোম্পানির তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি,১৪-মার্চ, ১৪) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদেনে এ তথ্য বেরিয়ে আসে।

ডিএসই সূত্রে জানা গেছে, আলোচিত বছরে কোম্পানিটির কর পরবর্তী মুনাফা হয়েছে ৭৩ লাখ ৯০ হাজার টাকা। শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস করেছে ২৪ পয়সা। যা আগের বছর একই সময়ে মুনাফা ছিল ৭১ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং ইপিএস ছিল ২৩ পয়সা।

উল্লেখ্য, এই ইপিএস কোম্পানির আইপিও পূর্ববর্তী ৩ কোটি ১৩ লাখ ৫০ হাজার শেয়ারের গড় ভারিত্ব হিসাবের উপর করা হয়েছে।

এদিকে নয় মাসে (জুলাই,১৩-মার্চ,১৪) পর্যন্ত কোম্পানিটির মুনাফা হয়েছে ২ কোটি ৫৪ লাখ টাকা। আর ইপিএস ৮১ পয়সা। যা আগের বছর একই সময় ছিল ২ কোটি ৪৫ লাখ টাকা। আর ইপিএস ছিল ৭৮ পয়সা।

আর এই ইপিএস কোম্পানির আইপিও পূর্ববর্তী ৩ কোটি ১৩ লাখ ৫০ হাজার শেয়ারের গড় ভারিত্ব হিসাবের উপর করা হয়েছে।

আর কোম্পানির আইপিও পরবর্তী ৪ কোটি ৫৩ লাখ শেয়ার হিসাব করলে ৯ মাসে কোম্পানির ইপিএস দাঁড়ায় ৫৬ পয়সা।

কোম্পানিটি পুঁজিবাজার থেকে মোট ১৪ কোটি টাকা সংগ্রহ করেছে। এই কোম্পানির আইপিওর আবেদন গ্রহণ করা হয় ৮ জুন থেকে ১২ জুন পর্যন্ত। আর প্রবাসী বাংলাদেশীদের আবেদন নেওয়া হয় ২১ জুন পর্যন্ত।

এর আগে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৫১৪তম সভায় সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের আইপিওর অনুমোদন দেয়া হয়।

আইপিওতে কোনো প্রিমিয়াম নেই। অভিহিত মূল্যেই শেয়ার ইস্যু করবে কোম্পানি। অর্থাৎ প্রতি শেয়ারের দাম হবে ১০ টাকা।

রাষ্ট্রায়াত্ব বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠান ইনভেস্টমেন্ট কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (আইসিবি) কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব পালন করছে।

জিইউ