নোয়াখালীতে যুবলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা, আটক ১

0
105
Noakhali-logo
নোয়াখালীর মানচিত্র
Noakhali-logo
নোয়াখালীর মানচিত্র

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলায় আরিফ হোসেন (৩২) নামে যুবলীগের এক নেতাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার রাতে উপজেলার আমিশাপাড়া ইউনিয়নের পালপাড়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।

নিহত আরিফ ইউনিয়নের ভগ্রগাঁও গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে। তিনি ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ছিলেন।

পুলিশ সূত্র জানায়, গতকাল রাত ১০টার দিকে ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামে একটি সালিস শেষে মোটরসাইকেলে করে বাড়ি ফিরছিলেন আরিফ। পালপাড়া গ্রামের উঁচুপোল নামক স্থানে এলে একদল দুর্বৃত্ত তার ওপর অতর্কিতে হামলা চালায়। তারা তাকে বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে মাথা থেঁতলে দেয়। মোটরসাইকেলে থাকা আরিফের সঙ্গী নুর মোহাম্মদ অক্ষত অবস্থায় পালিয়ে যান।

পরে চিত্কার শুনে আশপাশের লোকজন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। গুরুতর আহত অবস্থায় আরিফকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

নিহতের লাশ রাতে হাসপাতাল থেকে স্বজনেরা বাড়িতে নিয়ে যান। পরে রাত ৪টার দিকে সেখান থেকে লাশ থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি পারভেজ আলম অভিযোগ করেন, রাজনৈতিক কারণেই বিএনপির স্থানীয় কর্মীরা পূর্বপরিকল্পিতভাবে আরিফকে পিটিয়ে হত্যা করেছেন। তবে এ অভিযোগের বিষয়ে বিএনপির স্থানীয় কোনো নেতার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশরাফ উল ইসলাম বলেন, যুবলীগের ওই নেতাকে কে বা কারা পিটিয়ে হত্যা করেছে। বিএনপির কর্মীরাই ঘটনাটি ঘটিয়ে থাকতে পারেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

ঘটনাস্থল থেকে রক্তমাখা কয়েকটি বাঁশের টুকরো উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ছাড়া আরিফের মোটরসাইকেলে থাকা নুর মোহাম্মদকে রাতে আটক করা হয়েছে। ঘটনার বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

এদিকে হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে যুবলীগের স্থানীয় নেতা-কর্মীরা রাত সাড়ে ১১টার দিকে বজরা এলাকায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনের নোয়াখালী-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়ক অবরোধ করেন।
প্রায় আধা ঘণ্টা পর সোনাইমুড়ী থানার পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

একই ঘটনার প্রতিবাদে রাত ১২টার দিকে যুবলীগের নেতা-কর্মীরা আমিশাপাড়া বাজারে বিক্ষোভ মিছিল করেন। একপর্যায়ে মতিন স্টোর নামের একটি দোকানে ভাঙচুর চালানো হয়। রাত সাড়ে ১২টার দিকে ধন্যপুর গ্রামের একটি চায়ের দোকানে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে।

এএসএ/