যৌতুক না দেওয়ায় গোপানাঙ্গে অ্যাসিড!

0
53
অ্যাসিড বিরোধী বিক্ষোভ। ফাইল ছবি
অ্যাসিড বিরোধী বিক্ষোভ। ফাইল ছবি
অ্যাসিড বিরোধী বিক্ষোভ। ফাইল ছবি

যৌতুক না দেওয়ায় স্ত্রীর গোপনাঙ্গে অ্যাসিড ঢেলে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ভারতের এক গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, আট বছর আগে আক্রান্তের সঙ্গে বিয়ে হয় কল্যান আহিরওয়ারের। ২০০৯ সাল থেকে শুরু হয় পণের দাবিতে অত্যাচার। ২০১০ সালে অভিযুক্ত ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগও দায়ের করে আক্রান্ত ও তার পরিবার।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত আদালতের বাইরে মৌখিকভাবে আর আক্রান্তর ওপর অত্যাচার হবে না, এই আশ্বাস দিয়ে সমস্যা মিটিয়ে নেয় দুপক্ষেরই লোকজন। তবে মৌখিক আশ্বাস নেহাতই কথার কথা ছিল, অত্যাচার চলছিলই।

তবে বুধবার সন্ধেবেলা ঘটনাটি মারাত্মক আকার নেয়, যখন বন্ধু, প্রতিবেশী ও আত্মীয়ের সামনে শুধু স্ত্রীকে পণের দাবিতে অপমান করেই থেমে থাকেনি কল্যান, তার গোপনাঙ্গে ট্র্যাকটরের ব্যাটারি ফ্লুয়িডও ঢুকিয়ে দেয়। তারপর তাকে কেরোসিন তেল খেতে বাধ্য করে কল্যান ও তার পরিবারের লোকজন।

তারপরও যন্ত্রণার শেষ হয়নি আক্রান্তের। গোপনাঙ্গ, পেট ও পায়ের উর্ধ্বাংশে অসহ্য যন্ত্রণা নিয়ে ঘরের মধ্যে আটকে রাখা হয় সেই মহিলাকে। নূন্যতম চিকিত্সাও তাকে দেওয়া হয়নি,বলে দাবি করেছে আক্রান্ত মহিলা। অবশেষে তার মৃত্যু হয়েছে ভেবে মেয়েটির স্বামী তার বাবাকে খবর দেয় ও জানায় যে তার মেয়ে আত্মহত্যা করেছে। তখনই মেয়েটির জ্ঞান ফেরে। এরপর আক্রান্ত মেয়েটি তার বাবার সঙ্গে জেলা হাসপাতালে যায়। সেখানেই সে তার ওপর অত্যাচারের কথা সকলকে জানায়। আপাতত মেয়েটি জেলা হাসপাতালে চিকিত্সাধীন। অভিযুক্ত ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে মেয়েটির বাবা। তাদের কঠিন থেকে কঠিনতম শাস্তির দাবি জানিয়েছে আক্রান্ত ও তার পরিবারের লোক।