মেসিহীন আর্জেন্টিনার নায়ক ডি মারিয়া

৪-২ গোলে জার্মানির পরাজয়

0
72
De Maria
মেসিহীন আর্জেন্টিনার নায়ক ডি মারিয়া।

মহাতারকা লিওনেল মেসিকে ছাড়াই জার্মানির বিপক্ষে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে জয় পেয়েছে আর্জেন্টিনা। ডি মারিয়ার অসাধারণ কৃতিত্বে ৪-২ গোলে বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের হারায় বিশ্বকাপের রানারআপরা।

Argentina
জয়ের পর আর্জেন্টিনার খেলোয়াড়দের উল্লাস আর পরাজয়ে হতাশ হয়ে মাঠ ছাড়ছে জার্মানি দলে খেলোয়াড়রা।

চোটের কারণে ব্রাজিল বিশ্বকাপের ফাইনালে খেলতে পারেননি আনহেল ডি মারিয়া। মারাকানার রন্দ্রে রন্দ্রে দেখা গিয়েছিল তৎকালীন আর্জেন্টাইন রিয়াল মাদ্রিদ তারকার অভাব। তবে এবার চোটের কারণে দলে না থাকা অধিনায়ক মেসির তার অভাব মোটেই বুঝতে দেননি জোরালো শটের এই খেলোয়াড়।

বিশ্বকাপের প্রতিটি ম্যাচে জয়ের জন্য মেসির ভূমিকা অনেক বেশি হলেও গতকালের প্রীতি ম্যাচে দেখা গেছে ভিন্ন এক আর্জেন্টিনা। দলীয় প্রচেষ্টায় জয় পেয়েছে দলটি। ৪ জনের পা থেকে এসেছে ৪টি গোল। প্রতিটি গোলেই অবদান রেখেছে সদ্য রিয়াল মাদ্রিদ থেকে ম্যানচেস্টারে যোগ দেওয়া ডি মারিয়া। নিজে গোল করেছে এবং সের্হিও আগুয়েরো, এরিক লামেলা ও ফেদেরিকো ফের্নান্দেসকে গোল করতে সাহায্য করেছে।

জার্মানির হয়ে গোল দুটি করেন আন্দ্রে শুরলে ও মারিও গোটসে। বিশ্বকাপ ফাইনালে এই দুজনই ভেঙেছিলেন আর্জেন্টিনার তৃতীয় শিরোপার স্বপ্ন।

গতকাল বুধবার রাতে জার্মানির ডুসেলডর্ফে খেলার ২০তম মিনিটে প্রথম গোলটি করেন আগুয়েরো। ডি মারিয়ার মাপা পাসে খুব কাছ থেকে শটে জার্মানির জালে বল জড়ান এই স্ট্রাইকার। দ্বিতীয় গোলের জন্য মানুয়েল নয়ারকে পরাস্ত করেন লামেলা। ৪০তম মিনিটে ডি মারিয়ার ক্রস থেকে বাম পায়ে শটটি নেন তিনি।

এরই মধ্যে বেশ কয়েকটি গোলের সুযোগ নষ্ট করেন জার্মানির স্ট্রাইকাররা। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই বড় পরিবর্তন আসে বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের শিবিরে। বিশ্বকাপের সেরা গোলরক্ষক মানুয়েল নয়ারের বদলি হিসেবে রোমান ভাইডেনফেলারকে মাঠে নামান কোচ ইওয়াখিম লুভ।

কিন্তু দিনটি ছিল মারিয়ার। তাইতো ৪৭ মিনিটের মাথায় দলের ডিফেন্ডার ফের্নান্দেসকে দিয়ে তৃতীয় গোলটি করান তিনি। ডি মারিয়ার ফ্রি কিক থেকে ফের্নান্দেসের হেড; আর পরাস্ত হয় গোলরক্ষক ভাইডেনফেলার। মাত্র ৩ মিনিটের ব্যবধানে আবার জার্মানির জালে বল জড়ান মারিয়া। সতীর্থ খেলোয়ার পাবলো সাবালেতার পাস থেকে বল পেয়ে ভাইডেনফেলারের মাথার ওপর দিয়ে চিপ করে বল জালে জড়ান তিনি।

৫২তম মিনিটে ব্যবধান কমায় জার্মানি। কর্নার থেকে বল পেয়ে গোলরক্ষক সের্হিও রোমেরোকে ফাঁকি দিয়ে জার্মানির পক্ষে প্রথম গোলটি করেন শুরলে। ৭৬ মিনিটে বিশ্বকাপ ফাইনালের একমাত্র গোলদাতা গোটসের শট আর্জেন্টিনার বারে লেগে ফিরে যায়। ৭৮ মিনিটে তার অপর একটি শট ফের্নান্দেসের গায়ে লেগে আর্জেন্টিনার জালে জড়ায়।

এরপর আর গোল ব্যবধান কমাতে পারেনি বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে জেরার্দো মার্তিনোর শিষ্যরা। বিশ্বকাপের পর দলের দায়িত্ব থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন আলেহান্দ্রো সাবেইয়ার। তার স্থলাভিষিক্ত হন বার্সালোনার সাবেক কোচ মার্তিনো। জয় দিয়েই জাতীয় দলে পথ চলা শুরু করেন তিনি।

এমই/