ফারাক্কার গেট নিয়ে বাড়ছে উদ্বেগ

0
64
farakka
ফারাক্কা বাঁধ- ফাইল ছবি
farakka
ফারাক্কা বাঁধ- ফাইল ছবি

বর্ষায় ফুলে ফেঁপে উঠেছে গঙ্গার পানি। আর তাতেই আশঙ্কা বাড়ছে ভারতের ফারাক্কা বাঁধের দুর্বল গেটগুলি নিয়ে।

মার্চ-এপ্রিলে ফারাক্কা বাঁধ গঙ্গার খাতে পানির প্রবাহ ছিল মাত্র ৫৫ হাজার কিউসেক।

গত কয়েক দিন ধরে অবিরাম বর্ষণে বাঁধের সেই পানিপ্রবাহ অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে।

এক খবরে বুধবার ভারতের সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার জানিয়েছে, পানির এই চাপ বৃদ্ধিতেই ফারাক্কার গেটগুলি নিয়ে উদ্বেগ বেড়েছে ফারাক্কা বাঁধের বিশেষজ্ঞ ইঞ্জিনিয়ারদের।

চাপ সামাল দিয়ে গেট বাঁচাতে এই মুহূর্তে খুলে দেওয়া হয়েছে মূল বাঁধের বেশ কিছু গেট। বাকি বন্ধ গেটগুলির দু’পাশ দিয়েও পানি বেরিয়ে যাচ্ছে।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, ১৮.৩০ মিটার উচ্চতার এক একটি গেট দিয়ে প্রতি ফুটে ৫০০ কিউসেক পানি প্রবাহিত হওয়ার কথা। বর্তমানে বাঁধের বেশ কিছু গেট কার্যত অকেজো। সব থেকে সমস্যা হচ্ছে ওই অকেজো গেটগুলো নিয়ে।

বাঁধ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, একসঙ্গে এতগুলো গেট অকেজো থাকার ফলে বাকি গেটগুলোর উপর পানির চাপ বাড়ছে। ফলে বিপদের আশঙ্কা রয়েছে।

ফারাক্কার কংগ্রেস বিধায়ক মইনুল হক আশঙ্কা করছেন, “ফারাক্কা বাঁধ কর্তৃপক্ষের উদাসীনতায় বাঁধের লকগেটগুলির অবস্থা অত্যন্ত সঙ্কটাপন্ন। বর্ষায় পানির চাপে যে কোনও মুহূর্তে বড়সড় বিপর্যয়ের মুখে পড়তে পারে রাজ্য।”

তৃণমূলের মুখপাত্র ইমানি বিশ্বাস ইতিমধ্যেই বাঁধের বিপজ্জনক পরিস্থিতির কথা জানিয়ে রাজ্যের সেচমন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়েছেন।

ইমানি বলেন, “ভরা বর্ষায় পানির চাপ বাড়ছে বাঁধে। সব গেট খুলে দিয়ে পানির বাড়তি চাপ কমানোও সম্ভব নয়। কারণ অর্ধেকের ওপর গেট এখন ঠিকমতো খোলাই যায় না। এই অবস্থায় বাঁধ বিপন্ন হলে চরম বিপর্যয়ের মুখে পড়তে হবে সবাইকে।”