নেতাজিকে নিয়ে কৌতুহলের খেসারত ৫০,০০০ টাকা!

0
42
netaji-subhash-chandra-bose
নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু- ফাইল ছবি
netaji-subhash-chandra-bose
নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু- ফাইল ছবি

নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু প্রসঙ্গে কৌতুহলের জেরে শীর্ষ আদালতে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছিলেন পিএল শর্মা নামের এক ব্যক্তি। কিন্তু তার পরিণাম এত গুরুতর হবে তা ভাবতে পারেননি তিনি। ওই ব্যক্তির আবেদন তো আদালত খারিজ করলই উল্টো ‘ছেঁদো’ মামলা করার জন্য আবেদনকারীর উকিলকে ৫০,০০০ টাকার জরিমানা করল শীর্ষ আদালত।

বুধবার ভারতের বার্তা সংস্থা ওয়ানইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

জনস্বার্থ মামলা অনুযায়ী,  আবেদনকারী পিএল শর্মার আবেদন ছিল সরকার যেন নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর রহস্যময় অন্তর্ধানের বিস্তারিত বিবরণ প্রকাশ করে তার জন্য আদালত নির্দেশ দিক।

এই মামলাটি মুখ্য বিচারপতি আরএম লোধা, বিচারপতি কুরিয়ান জোসেফ এবং বিচারপতি রোহিনটন ফালি নারিমানের ডিভিশন বেঞ্চে ওঠে। বেঞ্চ আবেদনটি ‘ছেঁদো’ বর্ণনা করে খারিজ করে দেয়।

তাদের বক্তব্য, আবেদনকারীর উকিল এই ধরণের তুচ্ছ ও অযৌক্তিক মামলা দায়ের করা অভ্যাসে পরিণত করেছেন। তাই জরিমানা বাবদ প্রথমে ১ লক্ষ টাকা ধার্য করা হলেও পরে তা কমিয়ে ৫০,০০০ টাকা করা হয়।

মামলার শুনানির সময় আদালত আবেদনকারীকে নেতাজির জন্ম সাল প্রসঙ্গে প্রশ্ন করেন। পিএল শর্মা উত্তর দেন ১৮৯৭ সাল। একইসঙ্গে তিনি জানান, তিনি চান যাতে ভারতের এই মহান স্বাধীনতা সংগ্রামীর সঙ্গে কী হয়েছিল তা সারা দেশ জানুক।

আবেদনকারী শর্মা তার এই মামলার কারণ হিসাবে জনস্বার্থ বলেই ব্যাখ্যা করেছেন। কিন্তু শীর্ষ আদালতের ডিভিশন বেঞ্চ আবেদনকারীকে জানিয়েছেন, আপনি মনে করছেন এটা জনস্বার্থে, আমরা এই মামলা নিরাশাজনক মনে করছি।

এএসএ/