হজে থাকবে ৬০ হাজার নিরাপত্তাকর্মী

0
93
Makkah Sharif
ফাইল ছবি
Makkah Sharif
ফাইল ছবি

হজ উপলক্ষে এ বছর ৬০ হাজারেরও বেশি নিরাপত্তা কর্মী নিয়োগ দেওয়া হবে। যারা সার্বক্ষণিক হজযাত্রীদের সেবায় নিয়োজিত থাকবেন।

সৌদি আরবের নিরাপত্তা প্রধান মেজর জেনারেল ওসমান আল-মাহরাজের বরাত দিয়ে দেশটির সংবাদমাধ্যম সৌদি গেজেট এ তথ্য জানিয়েছে।

নিরাপত্তা প্রধান বলেছেন, নিরাপদে হজ পালন নিশ্চিত করতে এই নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা মক্কার মিনা, আরাফাত ও মুজদালিফায় নিয়োজিত থাকবেন।

প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, হজের পারমিট পর্দায় দেখার জন্য জাতীয় তথ্য সেন্টার নামে একটি বিশেষ ইলেক্ট্রনিক সেবা চালু করা হয়েছে। এটি নকল পারমিট থেকে রক্ষা পেতে; পারমিট এর তথ্য চেক করতে এবং পাসপোর্ট কর্মকর্তাদের সময় বাঁচাতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

পাসপোর্ট পুলিশদের এ বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন পাসপোর্ট বিভাগের ডিরেক্টর জেনারেল মেজর জেন. সুলায়মান বিন আব্দুল আজিজ আল ইয়াইয়া।

তিনি বলেছেন, ইতোমধ্যেই পাসপোর্ট পুলিশদেরকে বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করা হয়েছে।
আল ইয়াইয়া অবশ্য সৌদি ও বিভিন্ন দেশ থেকে আসা হজযাত্রীদেরকে হজ শুরুর আগে হজ পারমিট নিতে আহ্বান করেছেন। তিনি বলেছেন, অন্যথায় হাজিদেরকে ফিরে আসতে হবে।

তিনি মক্কা ও অন্যান্য পবিত্র স্থানে অবৈধ অভিবাসীদের যাতায়াতে সতর্ক করে দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, হজে শৃংখলা ভঙ্গকারীদের শাস্তি দেওয়া হবে।

অন্যদিকে মক্কা পৌরসভাও হাজিদের সেবায় ২৩ হাজারের বেশি কর্মী নিয়োগ দিয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে ১৪ হাজার পরিচ্ছন্নতাকর্মী। হজে এই কর্মীরা মক্কা ও পবিত্র স্থানগুলোতে পরিচ্ছন্নতার কাজে নিয়োজিত থাকবেন।

এ বছর ১৩ লাখেরও বেশি বিদেশি হজ পালন করতে পারেন বলে আশা করছেন সৌদি আরবের কর্মকর্তারা। যাদের অধিকাংশই দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন দেশের। এর মধ্যে বাংলাদেশ থেকে ৯৮ হাজার ৭৫৭ জনের হজে যাওয়ার কথা রয়েছে।