মার্চেন্ট ব্যাংক ও ব্রোকারহাউজের ঋণ সমন্বয়ের সময় বাড়লো

0
74

bb_buildingপুঁজিবাজারে  কর্মরত সহযোগী প্রতিষ্ঠান তথা ব্রোকারহাউজ ও মার্চেন্ট ব্যাংককে দেওয়া বাড়তি ঋণ সমন্বয়ের সময় এক বছর বাড়ানো হয়েছে।  আগামি ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে এ ঋণ সমন্বয়ের শেষ সময় ছিল। সময় বাড়ানোয় আগামি বছরের (২০১৪) ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে সীমার অতিরিক্ত ঋণ সমন্বয় করলেই চলবে।

পুঁজিবাজারে স্থিতিশীলতার লক্ষ্যে একক গ্রাহক ঋণসীমার শর্ত নমনীয় করার মাধ্যমে ব্যাংকগুলোকে এ সুযোগ দেওয়া হয়েছে। সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংক এ সর্ম্পকিত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

বিধি অনুসারে, একটি ব্যাংক কোনো একক গ্রাহককে তার মূলধনের (ব্যাংকের) ১৫ শতাংশের বেশি ঋণ দিতে পারে না। কিন্তু বেশ কয়েকটি ব্যাংক বিভিন্ন সময়ে তার সহযোগী প্রতিষ্ঠান তথা মাচেন্ট ব্যাংক ও ব্রোকারহাউজকে এ সীমার বেশি ঋণ দিয়েছে। আর এটি ঘটেছে ২০০৯ ও ২০১০ সালে।

ওই ঋণ সমন্বয়ে  ২০১১ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়ে সে বছরের আগস্ট মাসে কেন্দ্রীয় ব্যাংক একটি নির্দেশনা জারি করে।

তবে পুঁজিবাজারের অব্যাহত দরপতনের মুখে গত ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১১তে এ সময় এক বছর বাড়িয়ে ২০১২ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত করা হয়। এর পর এসময় আবার বাড়িয়ে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৩ করা হয়েছিল। আজ আবারো এই সময় এক বছর বাড়ানো হলো।