লিভারপুল, মিলানের জয়; আর্সেনালের ড্র

0
32
গোলের পর এসি মিলানের খেলোয়াড়দের উল্লাস।

গত সপ্তাহে ম্যানচেস্টার সিটির কাছে হারের পর গতকাল রোববার টটেনহ্যামের বিপক্ষে ৩-০ গোলে জয় পেয়েছে লিভারপুল। অপর ম্যাচে লাৎসিওকে ৩-১ গোলে হারিয়ে লিগ শুরু করেছে এসি মিলান। অন্যদিকে নবাগত লেস্টার সিটির সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে মাঠ ছাড়ে আর্সেনাল।

লিভারপুর-টটেনহ্যাম:

সম্প্রতি এসি মিলান থেকে অ্যানফিল্ডে যোগ দেওয়া মারিও বালোতেল্লিকে প্রথম একাদশেই রেখেই দল সাজিয়েছেন কোচ ব্রেন্ডন রজার্স। লিভারপুলের জার্সিতে অভিষেকের ৩য় মিনিটে বালোতেল্লির মাথা ঠেকানো বলটি আটকে দেন টটেনহ্যামের ফরাসি গোলরক্ষক হুগো লরিস।

Liverpool
গোলের পর লিভারপুল খেলোয়াড়দের উল্লাস।

বালোতেল্লিকে হতাশ করলেও ৮ম মিনিটে রাহিম স্টার্লিংকে রুখতে পারেননি লরিস। ডি বক্সের বাইরে থেকে স্ট্রাইকার ড্যানিয়েল স্টারিজের আড়াআড়ি পাস পেয়ে স্টার্লিংয়ে দিকে বল বাড়ান জর্ডান হেন্ডারসন।

৩১তম মিনিটে সহজ আরও ১টি সুযোগ নষ্ট করেন ইতালির স্ট্রাইকার বালোতেল্লি। লিভারপুলের একটা আক্রমণ রুখতে ডি বক্সের বাইরে বেরিয়ে আসেন টটেনহ্যাম গোলরক্ষক কিন্তু বল নিয়ন্ত্রণে নিতে ব্যর্থ হন তিনি। বল পেয়ে যান বালোতেল্লি। সামনে ফাঁকা গোলপোস্ট কিন্তু লক্ষ্য ঠিক রাখতে পারলেন না তিনি। ৪২ মিনিটে বেলজিয়ামের মিডফিল্ডার নাসের চাদলির শটটি দারুণ দক্ষতায় ঠেকিয়ে দেন লিভারপুলের গোলরক্ষক।

বিরতির পর আক্রমণের ধারাবাহিকতায় ৪৯ মিনিটে গোল পায় লিভারপুল। লিভারপুলের ডিফেন্ডার এরিক ডাইয়ারকে ডি বক্সে ফাউল করায় পেনাল্টি পায় অতিথিরা। তা থেকেই ব্যবধান দ্বিগুণ করেন অধিনায়ক স্টিভেন জেরার্ড।

৬০তম মিনিটে অসাধারণ এক গোল করে লিভারপুলের জয় নিশ্চিত করেন ডিফেন্ডার আলবের্তো মোরেনো। মাঝ মাঠে নিজেদের সীমানায় প্রতিপক্ষের খেলোয়াড় থেকে বল কেড়ে নিয়ে দুর্দান্ত গতিতে ছুটে গিয়ে বাম পায়ের কোনাকুনি শটে লক্ষ্যভেদ করেন স্পেনের ওই খেলোয়াড়।

প্রসঙ্গত, গত সপ্তাহে ম্যানচেস্টার সিটির মাঠে ৩-১ গোলে হেরেছিল গতবারের রানার্সআপ লিভারপুল।

আর্সেনাল-লেস্টার সিটি:

জয় দিয়ে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ শুরু করে কক্ষপথ থেকে ছিটকে পড়েছে আর্সেনাল। নবাগত লেস্টার সিটির সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে ফের পয়েন্ট হারিয়েছে লন্ডনের ক্লাবটি।

লিগে প্রথম ম্যাচে ক্রিস্টাল প্যালেসকে ২-১ গোলে হারানোর পর গত সপ্তাহে এভারটনের মাঠে ২-২ গোলে ড্র করে আর্সেন ভেঙ্গারের শিষ্যরা।

লেস্টার সিটির মাঠে রোববার আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে শুরু থেকেই লড়াই জমে ওঠে। এরই মধ্যে আলেক্সিস সানচেসের গোলে ২০তম মিনিটে এগিয়ে যায় আর্সেনাল।

ফরাসি ফরোয়ার্ড ইয়াইয়া সানোগোর প্রচেষ্টা গোলরক্ষক ঠেকিয়ে দিলেও বল পেয়ে যান চিলির স্ট্রাইকার সানচেস। একরকম বিনা বাধায় গোলটি করেন তিনি।

এক মিনিট পরেই অবশ্য গোলটি শোধ করে দেয় লেস্টার। ডি বক্সের মধ্যে থেকে হেড করে লক্ষভেদ করেন আর্জেন্টিনার ফরোয়ার্ড লিওনার্দো উলোয়া।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর দিকে পিছিয়ে পড়তে পারতো আর্সেনাল। কিন্তু গোলরক্ষককে একা পেয়েও উলোয়া লক্ষ্যভ্রষ্ট শট নিলে বেঁচে যায় গত মৌসুমে চতুর্থ স্থানে থেকে লিগ শেষ করা দলটি।

এরপর তিন মিনিটের ব্যবধানে চারবার এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ নষ্ট করে আর্সেনাল। শেষ পর্যন্ত তাই ড্রয়ের হতাশায় মাঠ ছাড়তে হয় তাদের।

এসি মিলান-লাৎসিও:

লিগে নিজেদের প্রথম ম্যাচে লাৎসিওকে ৩-১ ব্যবধানে হারায় গত মৌসুমে হতাশায় কাটানো এসি মিলান।

গোলের পর এসি মিলানের খেলোয়াড়দের উল্লাস।
গোলের পর এসি মিলানের খেলোয়াড়দের উল্লাস।

গতকাল রোববার ঘরের মাঠ সান সিরোতে মিলানের পক্ষে গোল তিনটি করেন তিন মিডফিল্ডার কেইসুকে হোন্ডা, সুল্লে আলি মুনতারি ও জেরেমি মেনেস।

প্রথমার্ধে সপ্তম মিনিটেই জাপানের খেলোয়াড় হোন্ডার গোলে এগিয়ে যায় মিলান। বাকি দুটি গোল হয় দ্বিতীয়ার্ধে, ৫৬ ও ৬৪ মিনিটে।

৬৭তম মিনিটে লাৎসিওর একমাত্র গোলটি আত্মঘাতী। নিজেদের জালে বল জড়ানোর ভুলটি মিলানের ব্রাজিলের ডিফেন্ডার আলেক্সের।

গত মৌসুমে ইতালির শীর্ষ লিগ সেরি আয় অষ্টম হয়েছিল ইতালির অন্যতম সফল দল মিলান।

এমই/